শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৫৩ অপরাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

দেশের চেয়ে আইপিএল বড় নয়: মোস্তাফিজ

দেশের চেয়ে আইপিএল বড় নয়: মোস্তাফিজ

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ প্রতিভা ‘দ্য ফিজ’ কিংবা ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত মোস্তাফিজুর রহমানের জন্মদিন রোববার (৬ সেপ্টেম্বর)। ১৯৯৫ সালের ৬ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন এই তরুণ তারকা। তার জন্মদিনে ‘পূর্বপশ্চিম’ পরিবারের পক্ষ থেকে রইল অফুরন্ত শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। শুভ জন্মদিন ‘দ্য ফিজ’।

সকাল হয়েছে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, ভক্ত-সমর্থক ও শুভানুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছায়। সহযোগী ক্রিকেটারদের প্রায় সবাই শুভেচ্ছা ও ভালোবাসায় সিক্ত করেছেন।

সে কথা জানিয়ে মোস্তাফিজ বলেন, জন্মদিন উপলক্ষ্যে সকাল সকাল অনেক শুভেচ্ছা পেয়েছি। অনেকেই ভালোবাসায় সিক্ত করেছেন। আমাদের ক্রিকেটারদের হোয়াটসআপ গ্রুপ আছে। সেখানে সাথের ক্রিকেটাররা অনেকেই জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়েছে। ছোট-বড় সবার শুভেচ্ছা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছি।

‘ভেবেছিলেন অন্যান্য দিনের মত আজ জন্মদিনের সকাল-দুপুরটিও হোম অব ক্রিকেটে কাটবে। কিন্তু তা হয়নি। জন্মদিনের প্রথম প্রহর কাটল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের খুব কাছে নিজ বাসায় একা। সাপোর্টিং স্টাফদের তিনজন করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় প্র্যাকটিস বন্ধ। তাই মাঠে যাওয়ার সুযোগ নেই। অগত্যা ঘরে বসেই জন্মদিন পালন করতে হচ্ছে।’

তিনি বলেন, তা নিয়ে অবশ্য খুব বেশি আফসোস নেই। তার চেয়ে বেশি খারাপ লাগছে মাঠে গিয়ে ফিটনেস ট্রেনিং ও বোলিং অনুশীলন করতে না পারায়।

কাটার মাস্টার বলেন, যতই কঠোর ও নিবিড় অনুশীলন করেন না কেন, আসল হলো ম্যাচ খেলা। একজন বোলার নেটে এবং ব্যক্তিগতভাবে যত হাড় ভাঙা পরিশ্রমই করুক না কেন, বোলিং কোচ তাকে যত গাইড করুক আর কার্যকর পরামর্শ দিক না কেন; বোলিংয়ে উন্নতি ঘটাতে হলে এবং ছন্দ পুরো পেতে চাই ম্যাচ খেলা। খেলে খেলেই আসলে নিজের উন্নতি ঘটাতে হয়। আমিও ম্যাচ খেলতে মুখিয়ে আছি।

এদিকে তার সামনে এসেছিল ম্যাচ খেলার সুযোগ। জমজমাট ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক আসর আইপিএল থেকে প্রস্তাব এসেছিল। কিন্তু শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য তা গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। পুরো ব্যাপারটি কী?

মোস্তাফিজুর রহমানের জবাব, আমাকে আইপিএলের দু’টি দল অফার করেছিল। কিন্তু আমার পক্ষে সে অফার গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। কী করে হবে বলুন? আমি তো তখন শ্রীলঙ্কা থাকবো। জাতীয় দলের সফরসঙ্গী হয়ে থাকার সময় তো আর আইপিএল খেলা যায় না।

তিনি বলেন, দেশের হয়ে খেলার চেয়ে তো আর আইপিএল বড় না। তাই আমার ও নিয়ে তেমন আফসোস নেই, আক্ষেপ নেই।

শেয়ার করুন...

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

%d bloggers like this: