শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে চায় বাংলাদেশ: মোস্তাফা জব্বার

ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে চায় বাংলাদেশ: মোস্তাফা জব্বার
প্রিন্ট করুন
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ত্রিশের দশকে শুরু হওয়া ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে আমরা নেতৃত্ব দিতে চাই। এ সুযোগ আমরা কোনোভাবেই মিস করতে চাই না। ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দিলেন। তখন হাস্যরস্য হয়েছে, কিন্তু আজ আমরা সেই ধারণার উপর প্রতিষ্ঠিত।

সোমবার (১১ মার্চ) দুপুরে নগর ভবনের সভা কক্ষে হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পে জমি প্রদানকারী চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) সঙ্গে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, আমরা শিল্প বিপ্লব মিস করেছি। পৃথিবীতে ইতোমধ্যেই তিনটি শিল্প বিপ্লব সম্পন্ন হয়েছে। যার কোনোটাতেই আমাদের কোনো অবদান নেই। চট্টগ্রামে অনেক ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তা রয়েছেন, আমি তাদের বলব এখনই ডিজিটাল শিল্প কারখানায় বিনিয়োগ করুন। প্রচলিত শিল্প ব্যবস্থায় পরিবর্তন আসছে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমাদের অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দু ছিল কৃষি। স্বাধীনতার পরও বঙ্গবন্ধুর প্রথম বাজেটে আয়ের সবচেয়ে বড় খাত ছিল কৃষি। কিন্তু তারও অনেক বছর আগে ১৮শ’ শতকে ইউরোপে শিল্প বিপ্লব শুরু হয়। পৃথিবীতে তিনটি ধাপে শিল্প বিপ্লব সম্পন্ন হয়েছে। প্রথমে মেশিন আবিষ্কার, পরে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট আবিষ্কারের মধ্যে দিয়ে। আমরা এর কোনাটারই সুযোগ নিতে পারিনি।

স্থানীয় ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ করে মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম সবসময় বাণিজ্য নগরী হিসেবে সারা বিশ্বে পরিচিত। মিরসরাইতে যে ইকোনোমিক জোন হচ্ছে তা সেই ক্ষেত্রে চট্টগ্রামকে আরও এগিয়ে রাখবে। আগামী ৫ বছরে সব কারখানায় ডিজিটাল প্রযুক্তি কাজে লাগাতে হবে। এসব শিল্প কারখানা যদি ডিজিটালাইজ না হয় তবে কোনো লাভ নেই। কারণ আগামী দিনের বিশ্ব শিল্পায়ন হাঁটছে ডিজিটাল পথে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ভৌগোলিক ও অন্যান্য অবস্থানের কারণে চট্টগ্রামকে সহায়তা করা মানে বাংলাদেশকে সহায়তা করা। চট্টগ্রামের উন্নয়ন মানে বাংলাদেশের উন্নয়ন। চট্টগ্রাম ডিজিটাল যুগে পেছনে পড়ে থাকতে পারে না। আগামীতে বন্দরের জাহাজ চলাচল থেকে চসিকের দৈনন্দিন কার্যক্রম সব নির্ভর করবে প্রযুক্তির ওপর। মেয়র দূরদর্শিতার সঙ্গে চট্টগ্রামের ভবিষ্যৎ দেখেছেন। সারা বিশ্বের সঙ্গে চট্টগ্রামের যোগাযোগ রয়েছে। তাই চট্টগ্রাম ডিজিটাল ব্যবসা-বাণিজ্যের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে। হাইটেক পার্ক এ ক্ষেত্রে সহায়তা হবে।

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

shares