সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

ভবন ভাঙতে বিজিএমইএর সামনে রাজউক

ভবন ভাঙতে বিজিএমইএর সামনে রাজউক
প্রিন্ট করুন
অবশেষে ভাঙা হচ্ছে রাজধানীর হাতিরঝিল লেকে আইন না মেনে গড়ে তোলা পোশাক শিল্প প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির প্রধান কার্যালয় বিজিএমইএ ভবন। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে ১৬ তলা ভবনটি ভাঙার কাজ শুরু করবে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা ইফতেখার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়ার পর উচ্চ আদালত থেকে নতুন করে কোনো প্রকার সময় বৃদ্ধি বা ভবন ভাঙা কার্যক্রম স্থগিত রাখতে কোন নির্দেশনা না পাওয়ায় বিজিএমইএ ভবনটি ভাঙার কাজ শুরু হচ্ছে।

ভবনটি ভাঙার জন্য রাজউকের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে রাজউক।

ভবনটি ভাঙার প্রস্তুতি নিয়ে হাতিরঝিলে অবস্থান নিয়েছে রাজউক কর্মকর্তারা। ভবনটি ভাঙার কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পুরো ভবনটি ভাঙতে একদিন সময় লাগবে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার সংস্থাটির পক্ষ থেকে বিজিএমইএ ভবনের সব ইউটিলিটি সার্ভিস যেমন গ্যাস বিদ্যুত, পানি, টেলিফোন লাইনসহ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের মাধ্যমে ভবনটির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এছাড়া ভবনটি থেকে মালামাল সরিয়ে নিতে অফিস মালিকদের স্বল্প সময় দেয়া হয়েছে। তারা মালামাল সরালেই আজই ভবনটি ভাঙার কার্যক্রম শুরু হবে।

রাজউকের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান, রাজউক বোর্ডের সদস্যগণ, হাতিরঝিল প্রকল্পের সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে মেজর জেনালের সাঈদ আহমেদ, প্রধান প্রকৌশলী ও পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থাকবেন।

কারওয়ান বাজারে জলাধার আইন ভঙ্গ করে তৈরি করা হয়েছিলো বিজিএমইএ ভবন। ২০১৬ সালের নভেম্বরে ভবন ভাঙার নির্দেশ দিয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয়। রিভিও আবেদন করেও কাজ না হলে মুচলেকা দিয়ে আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত এই ভবনে থাকার অনুমতি নেয় বিজিএমইএ।

ভবনটি ভাঙতে বিজিএমইএ’কে দেয়া সময় পার হয়ে যাওয়ার পরই সরকার এই ভবনটি ভাঙার কার্যক্রম শুরু করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ