শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগ সহজ হচ্ছে

মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগ সহজ হচ্ছে

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দীন আব্দুল্লাহর সঙ্গে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। বৈঠকে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দীন আব্দুল্লাহ বলেছেন, মালয়েশিয়ার সরকার বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ ও কাজ উভয়ই সহজ করে দিচ্ছে। আর এ সহজীকরণে একটি স্বাধীন কমিটি কাজ করছে।

মন্ত্রী বলেন, বিদেশি কর্মীরা যাতে করে স্বল্প খরচে নিশ্চিন্তে কাজে যোগদান করতে পারে এবং মধ্য স্বত্বভোগীদের দ্বারা প্রতারণার শিকার না হয়। মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে ২২ এপ্রিল সোমবার বৈঠককালে এ কথা বলেন।

উভয় দেশের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়নে এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে ঐক্যমত পোষণ করেছেন সেদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। শাহরিয়ার আলম দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া কোঅপারেশন (সায়াকো)”র মাধ্যমে মালয়েশিয়ার সমর্থন অর্জনের জন্য কুয়ালালামপুরে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল দেশটিতে অবস্থান করছেন।

এ ছাড়া বিভিন্ন ইস্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে সম্পর্কোন্নয়নে নবউন্মেষ হবে এ প্রত্যাশা করেন উভয় দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। তিনি স্মৃতিচারণ করেন।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক কালে শাহরিয়ার আলম বলেন, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের অনেকের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং হচ্ছে। এ জন্য মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

মালয়েশিয়া বাংলাদেশকে সোর্স কান্ট্রি করে শ্রম নিয়োজন শুরু করেছে সেহেতু কর্মরতদের বৈধতা সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান এবং নব নিয়োগের ক্ষেত্রে স্থগিতাদেশ দ্রুত প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন।

এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দীন আব্দুল্লাহ আশা প্রকাশ করে বলেন, নিয়ম-কানুন ও পলিসি মোতাবেক দ্রুত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে।

বৈঠকে মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশের নির্যাতিতরা বিপুল পরিমাণে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে এবং বাংলাদেশ এ সকল অসহায় লোকদের পাশে থেকে যে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তাতে সাধুবাদ জানিয়ে রোহিঙ্গা সমস্যার আশু সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন।

বৈঠকে মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডিজি (ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন) এএফএম গৌছুল আজম সরকার এবং সেস্কো ফাউন্ডেশনের নির্বাহী চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন চৌধূরী এবং মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ হাই কমিশনের অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, এটি একটি বেসরকারি খাত এবং ট্র্যাক -২ লেভেল ফোরাম – এই অঞ্চলের পাঁচটি ওআইসি দেশ – বাংলাদেশ, ব্রুনেই, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া এবং মালদ্বীপ -আঞ্চলিক অর্থনৈতিক একীকরণকে এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে।

বিদেশি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মতে, উদ্বোধনকালে ফোরাম সদস্য দেশ ও তাদের আশেপাশের অর্থনৈতিক সহযোগিতার এজেন্ডা নিয়ে বিশ্ব ইসলামী অর্থনৈতিক ফোরাম (ডাব্লুআইইএফ) মডেলের মধ্যে কাজ করবে।

বাংলাদেশ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এবং জনসাধারণের ও বেসরকারি স্টেকহোল্ডারদের সাথে বিদেশি মন্ত্রীদের প্রত্যাশিত অংশগ্রহণের সাথে সাথে ২০১৯ সালের জুনের শেষ দিকে ঢাকায় সিএইচওএর উদ্বোধনী সম্মেলনের আয়োজন করার জন্য প্রস্তুত।

একই উদ্দেশ্যে ব্রুনাইয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফররত মন্ত্রীর প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরাও রয়েছেন।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠককালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সমঝোতার পর্যালোচনা করেন এবং বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি রপ্তানি ও তাদের সুসম্পর্ক, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বিষয়ে আলোচনা করেন।

রোহিঙ্গা বিষয়ক আলোচনার পাশাপাশি আলোচনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল, যেখানে তারা বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ের জন্য আসিয়ানের উন্নত ভূমিকা পালন করেছিল।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ার বিগত সরকারের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী, সাবেক উপ প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক উপরাষ্ট্রমন্ত্রীর শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে তাঁর “ফলপ্রসূ” বৈঠক হয়েছিল এবং এই উদ্যোগের জন্য তাদের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থন ছিল।

প্রতিনিধিদল ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার ব্যবসায়ী এবং বাণিজ্য ও বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ এবং চেম্বারের সঙ্গে পৃথক পৃথক বৈঠক করেছেন এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, হাই কমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডিজি (ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন) এএফএম গৌছুল আজম সরকার এবং সেস্কো ফাউন্ডেশনের নির্বাহী চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন চৌধূরী, দূতাবাসের প্রথম সচিব (বাণিজ্য) মো: রাজিবুল আহসান।

বৈঠক শেষে মালয়েশিয়া সময় সাড়ে ৩টায় জালান অমপাং বেসার দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরণ শাখা পরিদর্শন করেন এবং পরিদর্শনের সময় পাসপোর্ট নিতে আসা প্রবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, হাই কমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম, পাসপোর্ট ও ভিসা শাখার প্রথম সচিব মো: মশিউর রহমান তালুকদার, শ্রম শাখার ২য় সচিব ফরিদ আহমদ। এর আগে বেলা আড়াইটায় জালান সেমারাক সুলতান ইয়াহিয়া পেট্রায় দূতাবাসের কন্স্যুলার শাখা পরিদর্শন করেন ।সূত্র -পূর্বপশ্চিম

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

shares