শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমান বাংলাদেশের বহরে যুক্ত হওয়া বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নতুন বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন । এটি বিমান বাংলাদেশের বহরে তৃতীয় ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) সকালে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে নতুন বোয়িং এর উদ্বোধন করেন তিনি। উদ্বোধনের পর সর্বাধুনিক প্রযুক্তির এ বিমানটি আজ বিকাল সাড়ে পাঁচটায় প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইটে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে।

এদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে পৌঁছালে বেসরকারি বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী তাকে স্বাগত জানান।এসময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার।

চলতি বছরের ২৫ জুলাই বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার সিয়াটল থেকে ঢাকায় আনা হয়। এই নিয়ে ‘গাঙচিল’সহ বিমান বহরে তিনটি ড্রিমলাইনার যুক্ত হলো। এতে বিমান বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫টি।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং এর সঙ্গে ১০টি নতুন উড়োজাহাজ কেনার চুক্তি করে। এসবের মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও দুটি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ইতিমধ্যে বিমান বহরে যুক্ত হয়েছে। বিমানের চারটি ড্রিমলাইনারের নাম বাছাই করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে আকাশবীণা, হংসবলাকা ২০১৮ সালে বাংলাদেশে এসেছে। চতুর্থ ড্রিমলাইনারের নাম রাজহংস।

টানা ১৬ ঘণ্টা উড়তে সক্ষম এই ড্রিমলাইনার চালাতে অন্যান্য বিমানের তুলনায় ২০ শতাংশ কম জ্বালানি লাগবে। গাঙচিল এর আসন সংখ্যা ২৭১টি, এর মধ্যে বিজনেস ক্লাস ২৪টি এবং ইকোনোমি ক্লাস রয়েছে ২৪৭টি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

shares