বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
24 hour essay writing service
Uncategorized
অপরাধ
অর্থনীতি
আদালত
আন্তর্জাতিক
আবহাওয়া
ইসলাম
কলাম
ক্যাম্পাস
ক্রিকেট
খেলাধুলা
চাকুরির খবর
ছবি
জাতীয়
জীবন ব্যবস্থা
তথ্যপ্রযুক্তি
ধর্ম
নির্বাচিত খবর
পরামর্শ
পুঁজিবাজার
প্রবাস
ফিচার
ফুটবল
ফেসবুক কর্নার
বিনোদন
বিবিধ
ভিডিও
ভোটের হাওয়া
মতামত
রাজধানী
রাজনীতি
রিপোর্টার পরিচিতি
শিক্ষা
শিরোনাম
শিল্প ও সাহিত্য
শীর্ষ খবর
সকল বিভাগ
সবখবর
সম্পাদকীয়
সর্বশেষ
সংস্কৃতি
সাক্ষাৎকার
সারাদেশ
সিটি কর্পোরেশন
স্বাস্থ্য কথা
শিরোনাম

এখনও সম্রাটকে আটক করা হয়নি কেন, প্রশ্ন তাপসের

এখনও সম্রাটকে আটক করা হয়নি কেন, প্রশ্ন তাপসের

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুদ্ধাপরাধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার, পিলখানা হত্যাকাণ্ড, নারায়ণগঞ্জের সাত খুনসহ দুর্নীতিগ্রস্ত খালেদা জিয়া ও তারেকের বিচার করে কার্যত দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন।

তার এই ধারাকে অব্যাহত রেখে দুর্নীতিবাজদের বিচারে চলমান অভিযানকে সহায়তা করতে আইনজীবীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ. ম রেজাউল করিম।

শনিবার (০৫ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের এক সাধারণ সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

বক্তব্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী রেজাউল করিম বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা এদেশের কিছু বিখ্যাত আইনজীবী ও প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের নিয়ে জুডিশিয়াল ক্যু করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু উনি ব্যর্থ হয়েছেন। এজন্য দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত করতে হলে আইনজীবীদের শক্তিশালী সংগঠন দরকার।

সভায় সংগঠনটির সদস্য সচিব ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, তিনি নির্দেশ দেওয়ার পরেও কেন এখন পর্যন্ত সম্রাটকে (যুবলীগ নেতা) আটক করা হয়নি। কেন এ নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করা হচ্ছে। তাকে বাঁচানোর জন্য কারা ষড়যন্ত্র করছে, পায়তাঁরা করছে, এগুলো আমাদেরকে দেখতে হবে’।

বালিশকাণ্ডের দুর্নীতি, ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতিসহ সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন ব্যর্থতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

সভায় সভাপতিত্ব করেন আহ্বায়ক ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন।

২০১৭ সালের ২১ মে এই সংগঠনের ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এরপর শনিবার প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সদস্য সচিব ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এমপি, যুগ্ম আহ্বায়ক ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. কামরুল ইসলাম এমপি, অ্যাডভোকেট কাজী মো. নজীব উল্লাহ হিরু, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন, ঢাকা মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আবু, ঢাকা জেলার পিপি অ্যাডভোকেট খোন্দকার আবদুল মান্নান, অ্যাডভোকেট মো. মোখলেছুর রহমান বাদল, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক অ্যাডভোকেট এস এম মনির, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ড. বশির আহমেদ, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ড. মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি, ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট শেখ হেমায়েত হোসেন প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভ্যাকসিন হিরো পদে ভূষিত হওয়ায় সভা থেকে অভিনন্দন জানিয়ে তার নেতৃত্বে পরিচালিত শুদ্ধি অভিযানকে সমর্থন জানানো হয়।বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

shares