বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (বিমক) কর্তৃক প্রণীত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের ‘কর্মকর্তা/কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও পদোন্নয়ন সংক্রান্ত নূন্যতম যোগ্যতার নির্দেশিকা-২০২২’ এ বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন কর্তৃক ঘোষিত ১২ দফা অন্তর্ভুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

আজ রবিবার (১৯ জুন ২০২২) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে উক্ত কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এতে নোবিপ্রবির কর্মকতার্বৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জনাব মো: সোহরাব ইকবাল এর সঞ্চালনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি জনাব সাখাওয়াত হোসেন, রেজিস্ট্রার (অ.দা) মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, পরিচালক হিসাব (ভারপ্রাপ্ত) জনাব মোহাম্মদ সাইদুর রহমান, পরিচালক (অ.দা.) পরিকল্পনা ও উন্নয়ন, প্রকৌশলী মোঃ জামাল হোসেন, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জনাব মো: সফিকুল ইসলাম, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি জনাব মোহাম্মদ আবদুর রহমান, দপ্তর ও প্রাচার সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন, মহিলা সম্পাদিকা তৃষা মজুমদার, কার্যকরী সদস্য জনাব ইসতিয়াক মোহাম্মদ ফয়সাল প্রমুখ।

মানববন্ধনে নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের অভিন্ন নীতিমালায় বিপক্ষে নই, কিন্তু কর্মককর্তা-কর্মচারীদের পেশাগত বৈষম্য দূরীকরণে বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন কতর্ৃক ঘোষিত ১২ দফা অন্তর্ভুক্ত করে নীতিমালা প্রণয়ন আমাদের প্রাণের দাবি।’

কর্মসূচিতে অন্যান্য বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের নীতিমালায় আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন কর্তৃক ঘোষিত ১২ দফা অন্তর্ভুক্ত করার আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মতর্কাদের পেশাগত বৈষম্য দূরীকরণ ও কর্মকর্তা নিয়োগ, পদোন্নতি ও পদোন্নয়ন সংক্রান্ত অভিন্ন নীতিমালায় আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশন কর্তৃক ঘোষিত ১২ দফা অন্তর্ভুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x