সৌদি প্রতিনিধি

হজ এবং ওমরাহ ভিসায় সৌদি গিয়ে মেয়াদের চেয়ে বেশি অবস্থান করলে প্রত্যেককে ২৫ হাজার রিয়াল (প্রায় ৬ লাখ টাকা) জরিমানা দিতে হবে। মক্কার পাসপোর্ট অধিদপ্তরের (জাওয়াজত) মুখপাত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ক্যাপ্টেন আবদুল রহমান আল-কাথামি বলেন, হজ ও ওমরাহ কোম্পানিগুলোর ওপর এই জরিমানা আরোপ করা হবে। কারণ হজযাত্রীদের ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই তাদের ফেরত পাঠানোর দায়িত্ব তাদের। খবর সৌদি গেজেটের

আল-এখবারিয়া চ্যানেলে “প্রথম বুলেটিন” শিরোনামের একটি প্রোগ্রামে যোগদান করে আল-কাথামি বলেন, হজ এবং ওমরাহ ভিসার নিয়মগুলো কঠোরভাবে প্রয়োগ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। করোনাভাইরাসের স্বাস্থ্যবিধির বেশিরভাগই এরই মধ্যে তুলে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, অতীতে বেশ কয়েকটি হজ ও ওমরাহ কোম্পানির প্রতিনিধিদের তলব করা হয়েছিল তাদের বিরুদ্ধে আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ তদন্ত করার জন্য। এরই মধ্যে ২০৮টি কোম্পানিকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। এই কোম্পানিগুলোর প্রত্যেকের উপর জরিমানা আরোপ করা হয়েছে।

ভিসার প্রকারের মধ্যে রয়েছে- ওমরাহর উদ্দেশ্যে ভিজিট ভিসা, বিদেশি এজেন্টদের মাধ্যমে ওমরাহ ভিসা এবং ট্রানজিট ভিসা।

ওমরাহের উদ্দেশ্যে ভিজিটর ভিসা থেকে যে দেশগুলো উপকৃত হবে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে- যুক্তরাজ্য, কানাডা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চীন, জাপান, জার্মানি, ফ্রান্স, ইতালি, কাজাখস্তান, মালয়েশিয়া, ব্রুনাই, অ্যান্ডোরা, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, বুলগেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া, সাইপ্রাস, চেক প্রজাতন্ত্র, ডেনমার্ক, এস্তোনিয়া, ফিনল্যান্ড, হাঙ্গেরি, নেদারল্যান্ডস এবং গ্রিস।

তালিকায় আরও রয়েছে আইসল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, লাটভিয়া, লিচেনস্টাইন, লিথুয়ানিয়া, লুক্সেমবার্গ, মাল্টা, মোনাকো, মন্টিনিগ্রো, নরওয়ে, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, রোমানিয়া, রাশিয়া, সান মারিনো, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, স্পেন, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, ইউক্রেন, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x