নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন ক্রয় এবং দেশব্যাপী কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি সফলভাবে পরিচালনার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্যাংক এবং বিশ্বের সর্ববৃহৎ বহুজাতিক ঋণ দাতা সংস্থা ইউরোপিয়ান ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক (ইআইবি) বাংলাদেশকে ২৫ কোটি ইউরো সহায়তা প্রদান করবে।

বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) ইইউ দূতাবাস থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোভিড-১৯-এর নেতিবাচক প্রভাব হ্রাস করার পাশাপাশি এই আর্থিক সহায়তা বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবাকে সমৃদ্ধ, নাগরিকদের কোভিড-১৯-এর প্রভাব থেকে নিরাপত্তা প্রদান এবং টেকসই অর্থনৈতিক ও সামাজিক প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করবে।

২০২১ সালে দক্ষিণ এশিয়ার স্বাস্থ্য খাতের জন্য ইআইবি’র অনুমোদিত বরাদ্দ সাড়ে ৪২ কোটি ইউরো সহায়তার এটা প্রথম ধাপ এবং এর অন্যতম উদ্দেশ্য কোভিড টিকাদানে সুদূরপ্রসারী সহায়তা ও স্বাস্থ্যসেবা সমৃদ্ধকরণ।

বাংলাদেশ এবং মালদ্বীপসহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশগুলো এর আওতায় পড়বে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব হাসান সালেহ বলেন, ‘বাংলাদেশ এবং ইআইবির অংশীদারিত্বে ভ্যাকসিন কেনার জন্য ২৫ কোটি ইউরোর এই ঋণ সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ। বাংলাদেশে ইআইবির কর্মকাণ্ড বিস্তার হচ্ছে এবং তা ভবিষ্যতে দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।’

তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, অবকাঠামো উন্নয়ন বাংলাদেশ এবং ইইউ উভয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এসব খাতে ইইউ আগামীতে আরও জোরালো ভূমিকা রাখবে।’

বাংলাদেশে নিযুক্ত ইইউ’র রাষ্ট্রদূত চার্লস হোয়াইটলি বলেন, ‘ইআইবির এই সহায়তা বাংলাদেশ এবং টিম ইউরোপ অংশীদারিত্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন, যা বাংলাদেশকে মহামারি মোকাবিলায় সাহায্য করবে।’

তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন থেকে আরম্ভ করে বাণিজ্য, যোগাযোগ এবং অন্যান্য খাতে ইইউ ও বাংলাদেশের সম্পর্ক বিস্তৃত হচ্ছে। স্বাস্থ্যসেবায় এই সহায়তা আমাদের বন্ধন দৃঢ়করণের একটি লক্ষণ।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x