নিজস্ব প্রতিবেদক || জিয়া পরিবারের সদস্য ব্যারিস্টার জাইমা রহমান এবং নারী সমাজের প্রতি অবমাননাকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডা.মুরাদ হাসান এমপি’র বিরুদ্ধে কুড়িগ্রামে মামলার আবেদন করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম, কুড়িগ্রাম জেলা ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশিদ বাদি হয়ে সদর আমলী আদালতে এই মামলার আবেদন করেন। আবেদনে ডা. মুরাদ ছাড়াও মহির উদ্দিন হেলাল নাহিদ ওরফে নাহিদ হেলাল নামে আরও একজনকে আসামি করা হয়েছে।

বাদির আইনজীবী তারিকুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অ্যাডভোকেট তারিকুর রহমান জানান, কুড়িগ্রাম চিফ জুডিসিয়াল মেজিস্ট্রেট আদালতের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল মেজিস্ট্রেট ও সদর আমলী আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান বাদীর আবেদন গ্রহণ করেছেন। পরবর্তীর্তে আদেশ দেওয়া হবে জানিয়েছে আদালত।

মামলার আবেদন সূত্রে জানা গেছে, ডা. মুরাদ হাসান প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকাকালীন সময় গত ১ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে অপর অভিযুক্ত মহির উদ্দিন হেলাল নাহিদকে একটি সাক্ষাতকার প্রদান করেন যা পরবর্তীতে মুরাদ হাসান তার নিজস্ব ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রকাশ ও প্রচার করেন।

প্রচারিত ওই সাক্ষাতকারে ডা. মুরাদ উদ্দেশ্যমূলক ভাবে জিয়া পরিবার ও ব্যারিস্টার জাইমা রহমান সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচীপূর্ণ নারী বিদ্বেষী এবং যেকোনও নারীর জন্য মর্যাদাহানীকর ভাষা ব্যবহার করেন। এ ধরণের মিথ্যা তথ্য প্রকাশ এবং প্রচার করে আসামিদ্বয় দেশে রাজনৈতিক সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃনা, বিদ্বেষ সৃষ্টির মাধ্যমে ১৮৬০ সনের পেনাল কোডের ১৫৩-ক/ ৫০৫-ক/৫০৯ ধারায় অপরাধ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x