দেশের কিশোর-কিশোরী-তরুণ-তরুণীদের স্বাস্থ্যবিষয়ক তথ্যসেবা পাওয়া আরও সহজ করতে কৈশোর স্বাস্থ্য ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) জাতীয় কৈশোর স্বাস্থ্য সম্মেলনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু করার ঘোষণা দেয়। এই উদ্যোগের সহযোগী ইউনিসেফ এবং সুইডিশ দূতাবাস।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘এই প্ল্যাটফর্মগুলো হবে সরকারের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের প্রতিফলন।’

ইউনিসেফের হিসাবে দেশে কিশোর-কিশোরীর সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি ৬০ লাখ। তাদের বিকাশে অপরিহার্য স্বাস্থ্যসেবা ও তথ্য পাওয়ার ক্ষেত্রে নানান সামাজিক বাধা।

মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবের সঙ্গে সমাজে এ নিয়ে নানা নেতিবাচক ধ্যান-ধারণা ও কুসংস্কার রয়েছে জানিয়ে ইউনিসেফ বলছে, যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য এবং অত্যাবশ্যক সেবা পাওয়া কঠিন।

ইউনিসেফের বাংলাদেশ প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট বলেন, বয়ঃসন্ধিকাল রূপান্তরের সময়, যখন কিশোর-কিশোরীরা বিস্তৃত পরিসরে পৃথিবীর মুখোমুখি হয়, মুখোমুখি হয় নতুন চ্যালেঞ্জের। এই অ্যাপটি তাদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেবে, যেগুলো তারা বাবা-মা, বন্ধু এমনকি স্বাস্থ্যসেবা সংশ্লিষ্টদের কাছেও জিজ্ঞাসা করতে লজ্জা পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x