হুমায়ুন কবির, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ
কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসের আয়োজনে ষষ্ঠ জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর মূল শুমারি কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে দ্বিতীয় ধাপে গণনাকারীদের ৪ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার হয়েছে।

রবিবার (১২জুন) সকালে খোকসা উপজেলার ঈশ্বরদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪ দিন ব্যাপি দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী দিনে উপকরণ বিতরণ করেন জানিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, দেশের প্রকৃত অবস্থা জানতে ও বুঝতে নির্ভুল ও সঠিক পরিসংখ্যান জরুরী। কেননা পরিসংখ্যানের উপর নির্ভর করে দেশের কর্ম পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়। যদি পরিসংখ্যান ভুল হয় তাহলে দেশের পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করা দুরহ হয়ে যাবে। তাই বর্তমানে জনশুমারী ও গৃহগণনার যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে এবং এ কাজে যারা যুক্ত রয়েছেন তাদের স্বচ্ছতার সাথে কাজ করতে হবে।

সঠিক নির্ভুল পরিসংখ্যান জনশুমারি ও গৃহগণনা কল্পে আপনাদের ডিজিটাল ডিভাইস এর মাধ্যমে যে প্রশিক্ষণ জ্ঞান অর্জন করেছেন তা বাস্তব জীবনে কাজে লাগিয়ে সরকারের সঠিক পরিকল্পনা সফল করতে নিজেদেরকে আত্মনিয়োগ করবেন।
উপজেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের জোনাল অফিসার মোঃ সদর উদ্দিন এর পরিচালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ঈশ্বরদী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম, শিক্ষক বাবু সন্তস কুমার ঘোষ,পরিসংখ্যান অফিসের সাতটি সুপারভাইজার ও ২৮ জন গননাকারী সহ অনেকেই।

দেশে প্রথমবারের মত সপ্তাহব্যাপী ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা শুরু হচ্ছে আগামি ১৫ জুন। চলবে ২১ জুন পর্যন্ত। প্রশিক্ষণে ৭ জন সুপারভাইজার ও ২৮ জন গণনাকারী অংশগ্রহণ করেন। পরে প্রশিক্ষণরত সকল গণনাকারী ও সুপারভাইজারদের হাতে বিভিন্ন উপকরণ তুলে দেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ।

ক্যাপশনঃ চার দিনের কর্মশালার প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে বিভিন্ন উপকরণ তুলে দিচ্ছেন চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x