চীনে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল কুনমিং-এ যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে। জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এ দিবসের কর্মসূচির সূচনা করেন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

জাতির পিতার জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক চিত্রাঙ্কনের জন্য শিশুদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং শিশুদের সঙ্গে নিয়ে কেক কাটা হয়।

কর্মসূচির মধ্যে ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রূহের মাগফেরাত কামনা এবং দেশ ও জনগণের কল্যাণ-সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ, আলোচনা অনুষ্ঠান এবং প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন।

আলোচনা অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল এ এফ এম আমিনুল ইসলাম বলেন, জনগণের কল্যাণ ও সেবায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করেছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। দেশ ও জনগণের প্রতি বঙ্গবন্ধু অসামান্য অবদান রেখেছেন।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রথম সচিব (উপসচিব) মো. বজলুর রশীদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x