মুরাদ মিয়া, সুনামগঞ্জ:

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তের ওপারে ভারত থেকে চোরাই পথে নিয়ে আসা ফের ভারতীয় চোরাই কয়লা বোঝাই ৩ টি কাঠবডি নৌকাসহ ৬ চোরাকারবারিকে আটক করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।

আজ (১০ সেপ্টেম্বর) শনিবার ভোররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের তেরঘর নামক এলাকা থেকে ৬ চোরাকারবারি সহ কয়লা বোঝাই ৩ টি কাঠবডি নৌকা আটক করেন এসআই আবু বক্কর ছিদ্দিক।

এ বিষয়ে তাহিরপুর থানার এসআই আবু বক্কর ছিদ্দিক বাদি হয়ে শনিবার দুপুরে আটককৃত ৬ চোরাকারবারি উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের নবাব পুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে রাসেল মিয়া(৩৫), শাহনুর মিয়ার ছেলে স্বরুপ মিয়া(৩৫), মৃত আত্তাজ আলীর ছেলে মুখলেছ মিয়া(৩৬) ও একই ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের মৃত শামছু মিয়ার ছেলে রিপন মিয়া(২৮), লালঘাট গ্রামের মৃত জবর আলীর ছেলে আসন আলী (২৮) ও হাবিল উদ্দিনের ছেলে নুর ইসলাম (২৫) এর নাম উল্লেখ পূর্বক এবং আরও ১০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করেন তাহিরপুর থানার এসআই আবু বক্কর ছিদ্দিক।

মামলা সূত্রে জানা যায়, তাহিরপুরের বালিয়াঘাট-চারাগাঁও, ট্যাকেরঘাট সীমান্তের কয়েকটি চোরাচালানী চক্র গত দু’বছরের অধিক সময় ধরে বিনাশুল্কে ভারত হতে চোরাচালানের মাধ্যমে কয়লা চালান এপারে নিয়ে এসে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে আসছে চোরাচালানকারী সিন্ডিকেট চক্রটি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার রাতে আটককৃত চোরাকারবারিরা তাহিরপুর উপজেলার ট্যাকেরঘাট সীমান্তের কবরস্থান ,বালিয়াঘাট সীমান্তের লাকমা, চারাগাঁও সীমান্তে লালঘাট ও চারাগাঁও এলাকা দিয়ে বিনাশুল্কে ভারত থেকে চোরাই পথে ভারতীয় চোরাই কয়লার বাংলাদেশ নিয়ে আসে। পরে ভোররাতে চোরাকারবারি সিন্ডিকেট চক্রটি ৩টি কাঠবডি ইঞ্জিন চালিত নৌকায় চোরাই কয়লার বস্তা বোঝাই করে পাশ্ববর্তী নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা যাওয়ার পথে খবর পেয়ে তাহিরপুর থানার এসআই আবু বক্কর ছিদ্দিকেত নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের তেরঘর নামক স্থান থেকে ৬ চোরাকারবারি সহ কয়লা বোঝাই ৩টি নৌকা আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এব্যাপারে তাহিরপুর থানার ওসি সৈয়দ ইফতেখার হোসেন বলেন, পুলিশ বাদী হয়ে আটককৃত ৬ চোরাকারবারি সহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০জন আসামি করে থানায় একটি মামলা হয়েছে। সবরকমের চোরাচালান রোধে পুলিশ সব সময়ই বদ্ধ পরিকর। চোরাচালান বন্ধে পুলিশের এইরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে সবসময়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x