পাবনা প্রতিনিধি ঃরবি মৌসুমে পদ্মার পানি সরে যাওয়ায় পাবনা সুজানগর উপজেলা চড় ভবানীপুর বাহের চড় পদ্মা নদীর তীরবর্তী এলাকায় হাজার হাজার বিঘা জমি জেগে উঠায় এলাকার গরু চাষিরা ফসলের পাশাপাশি গরু,ছাগল,ভেরা,ও মহিষ পালন করে ভাল লাভবান হয়। লাভের আশায় এলাকার ঝন্টু বিস্বাস পিতা-করিম বিস্বাস, মিরাজ প্রামানিক, পিতা-নিজাম প্রামানিক,মতিন মন্ডল,পিতা-নিজাম মন্ডল এক সাথে একটি গরুর বাথান তৈরি করে। বাথানে তিনটি রাখাল প্রতিদিনের মত রাতে পদ্মার চড়ে তাদের নির্ধারিত জায়গায় বেঁধে রেখে প্রতিদিনের মত ঘুমিয়ে পরেন।
হঠাৎ ০৬-০৩-২০২২ তারিখে শনিবার মধ্যরাতে একদল ডাকাত গরুরাখাল-ঝন্টু, মতিন ও শহিদকে অস্ত্রের মুখে জিম্বি করে তাদের নৌকায় বেঁধে রেখে গরুর বাথান থেকে ২২টি গরু ডাকাতি করে নদী পথে নৌকায় নিয়ে যায় এবং ডাকাত দল তিন জন রাখালকে নাজিরগঞ্জ ইউনিয়নে হাত পা বাঁধা অবস্থায় দূর্গম চড়ে রেখে পালিয়ে যায়। মাছ ধরার জেলেরা তিনজন রাখালকে উদ্ধার করে।

এ দিকে ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেন সুজানগর থানার ওসি আব্দুল হান্নান তিনি বলেন আমরা ডাকাতদের ধরার চেষ্টা করছি,আশা করি খুব শিগ্রই ডাকাতদের ধরতে সক্ষম হব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x