শুধু কাতার বিশ্বকাপই নয়, যেকোনো ফুটবলে এবারই প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে ইরান। দুই দলের শক্তি সামর্থ্য হিসেবে ইরানের থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে ইংল্যান্ড দল। কারণ বর্তমান প্রজন্মের ক্লাব ফুটবলের বেশ কিছু তরুণ তারকা খেলোয়াড় রয়েছে ইংল্যান্ড দলে। ১৬তম বারের মতো বিশ্বকাপে খেলছে ইংল্যান্ড। আর ৫বার ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছে ইরান।

১৯৬৬ সালে ইংল্যান্ডের প্রথম ও সর্বশেষ বিশ্বকাপ জয়ের পর কেটে গেছে ৫৬ বছর। তবে কাতার বিশ্বকাপে সমকামী-বিদ্বেষ ও বিদেশি শ্রমিকদের দুর্দশা নিয়ে আয়োজক দেশটির সমালোচনায় মুখর দলটির অধিনায়কের ‘ওয়ান লাভ’ আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামার কথা আজ।

এদিকে ইরানের কঠোর পোশাকবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর ২২ বছর বয়সী কুর্দি তরুণী মাশা আমিনির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় উত্তাল হয়ে আছে ইরান। এর প্রতিবাদের মঞ্চ হতে পারে কাতার বিশ্বকাপ। অন্যদিকে কাতারের সমকামী বিদ্বেষের প্রতিবাদ জানাতে আগেই ঘোষণা দিয়ে রেখেছে ইংল্যান্ড। ফলে দুই দলের ভিন্নমুখী প্রতিবাদ উত্তাপের আবহই তৈরি করে রাখছে। সবমিলে ইংল্যান্ড-ইরান ম্যাচটা আলাদা করে নজরে থাকবে সবার।

সোমবার আল রাইয়ানের খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে গ্রুপ ‘বি’ ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায়।

ইরান এশিয়ার অন্যতম সেরা হলেও ইউরোপীয় কোনো দলের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত জয়হীন। ইউরোপীয়ানদের বিপক্ষে ৮ ম্যাচ খেলে হেরেছে ৬ টি।

ইরানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে একই সঙ্গে সুখ এবং দুশ্চিন্তা দুই অনুভূতিই আছে ইংল্যান্ডের কোচ সাউথগেটের। ইনজুরি থেকে পুরোপুটি ফিট কাইল ওয়াকার। তবে একই কারণে শেষ দিনের অনুশীলন মিস করেছেন জেমস ম্যাডিসন।

এদিকে আক্রমণাত্মক ফুটবল পছন্দ ইংল্যান্ড কোচের। তাই এ ম্যাচে সম্ভবনা ৪-৩-৩ আক্রমণাত্মক ফর্মেশনেই মাঠে নামবে ইংল্যান্ড। যেখানে শুরুর একাদশে সাইড বেঞ্চে থাকতে হতে পারে হ্যারি ম্যাগুয়ের। মধ্যমাঠে ফিল ফোডেন-রাইস-ম্যাসন মাউন্টেই ভরসা। আক্রমণে র‌্যাশফোর্ড-স্টার্লিংয়ের সঙ্গে থাকবেন অধিনায়ক হ্যারি কেইন। ইংল্যান্ড সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে সাথে ইউরোর ফাইনালও খেলেছে।

ইংল্যান্ড-ইরান ম্যাচে সবার ফোকাস থাকবে ইংলিশ অধিনায়ক হ্যারি কেইনের দিকে। ৯ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকারের জাতীয় দলের জার্সিতে ৭৫ ম্যাচে রয়েছে ৫১ গোল। সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক ওয়েইন রুনির ৫৩ গোলের রেকর্ড চলতি আসরেই ভেঙে দেওয়াটা খুবই সম্ভব তার জন্য। রাশিয়া বিশ্বকাপেও হয়েছিলেন সর্বোচ্চ গোলদাতা।

অন্যদিকে নানা ইস্যুতে বিশ্বকাপ থেকে ইরানকে বাদ দিতে ফিফার কাছে অনুরোধ করেছিল অনেক দেশই। সে তালিকায় ছিল ইংল্যান্ডও। এবার ইরানের কাছে বদলা নেয়ার সুযোগ। কোস্টারিকা শেষ মুহূর্তে প্রীতি ম্যাচ বাতিল করায় অনুশীলনে কিছুটা ঘাটতি থাকলেও ইংল্যান্ড ম্যাচে সব পুষিয়ে দিতে চান কোচ কার্লোস কুইরোজ।

প্রতিপক্ষ কিছুটা কঠিন বলে ডিফেন্স সামলে আক্রমণে যেতে চায় ইরান। এ ম্যাচে তাই তার সম্ভাব্য ফর্মেশন হতে পারে ৪-১-৩-২ খেলেই আক্রমণ শানাতে চাইবে মেহেদী তারেমি বা সরদার আজমাউনরা। সেজন্য স্কোরের দায়িত্বটা করিম আনসারিফার ওপরই বর্তাবে।

নারী অধিকার নিয়ে বিক্ষোভ-সহিংসতায় উত্তাল দেশের কথা মাথায় রেখেই মাঠে নামতে হচ্ছে দলটিকে। অধিনায়ক আলীরেজা জাহানবখস অবশ্য সবকিছু ভুলে খেলাতেই মনোযোগ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তবে তারা কতটা ভুলতে পারবেন কে জানে, দলটির সবচেয়ে বড় তারকা সরদার আজমুন তো কয়েক দিন আগেই ইনস্টাগ্রামে ইরানি সরকারের সমালোচনা করেছেন।উল্লেখ্য, কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ ‘বি’-তে রয়েছে ইরান, যুক্তরাষ্ট্র এবং ওয়েলস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x