রবিবার,১১, সেপ্টেম্বর,২০২২ খ্রি. জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪০৫তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আব্দুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক গবেষক আবু সালেক খান,রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও বিশিষ্ট নারীর উদ্যোক্তা আমাতুন নূর।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রমিজ আহমেদ সুলতান, ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ফ্যাকাল্টি কাজী ফারজানা ইয়াসমিন, সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল, ও নীলফামারী জল ঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতিমা তুজ জোহরা এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন চিরসবুজ ব্যক্তিত্ব।

আব্দুস সাত্তার দুলাল
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুস সাত্তার দুলাল বলেন,মানবাধিকার একক ব্যক্তির ক্ষেত্রে যেমন প্রযোজ্য, তেমনি অনেক ব্যক্তির সমষ্টি জনগণের জন্যও সমানভাবে কার্যকর। বঙ্গবন্ধু নিজের কোনো সুবিধা আদায়ের জন্য কখনও সংগ্রাম করেননি, তিনি আজীবন সংগ্রাম করেছেন সাধারণ জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য।

অধ্যাপক আবু সালেক খান
গবেষক আবু সালেক খান বলেন,জাতির পিতার সমগ্র জেল জীবন ৩০৫৩ দিন পাঠ করলে দেখা যায়, তিনি নিজের কোনো ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য কখনও সংগ্রাম করেননি, সংগ্রাম করেছেন জনদাবি আদায়ের জন্য। জনস্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে ব্যক্তিগত জীবনের, বিশেষ করে যৌবনের শ্রেষ্ঠ সময়গুলো তাকে কারাযাপন করতে হয়েছে।

প্রশান্ত কুমার সরকার, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নৈতিক শক্তি এবং দেশপ্রেমের দৃষ্টান্ত তুলে ধরেন।

আর্জিনা খানম বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করতে না পারলে প্রকৃতঅর্থে রাজনীতির সুফল জনগণ ভোগ করতে পারবে না।

আমাতূন নূর
আমাতুন নূর বলেন,বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল ‘সোনার বাংলা’র স্বপ্ন এবং ‘দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানো’র স্বপ্ন। অসংখ্যবার তিনি এ কথা উচ্চারণ করেছেন। তাঁর এই ব্যক্তিগত আবেগ প্রশ্নাতীত সত্য।

ফারহানা আকতার
ফারহানা আকতার, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি ১৯৬৯ সালে পূর্বপাকিস্তানের আপামর জনগণের যে ১১ দফা দাবি পাকিস্তান সরকারের নিকট পেশ করাহয়েছিল সে বিষয়ে আলোকপাত করেন।

 

প্রভাষক কাজী আওলাদ হোসেন
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন, বাংলা ৫২ নিউজ ডটকম পত্রিকার সম্পাদক প্রভাষক কাজী আওলাদ হোসেন,সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ফ্যাকাল্টি কাজী ফারজানা ইয়াসমিন, নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি ফাতিমা-তুজ- জোহরা,কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির, পিএইচডি গবেষক শামসুন্নাহার লাভলী ও লিও জান্নাতুল ফেরদৌস তিথি।

দিপু সিদ্দিকী
সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা. বায়েজিদা ফারজানা, রাজশাহী থেকে ডা. এবিএম মাহাবুবুল হক ও রংপুর সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক আতাউর রহমান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x