আজ বুধবার ,০১ জুন,২০২২ খ্রি. তারিখে মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ্ সেমিনারের ৩০১তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক গবেষক আবু সালেক খান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মাহমুদা খানম, রাজশাহী থেকে ড. মনোয়ার, যশোর থেকে নূর-এ-আলম জাহিদ।
সেমিনারে গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস্ চ্যাম্পিয়ন আবদুস সাত্তার দুলাল ও রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,গোপালগঞ্জ এর বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।
সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে কোনো দ্বিধা করতেন না ।
আর্জিনা খানম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বদা শোষিতের পক্ষে ছিলেন।
আবদুস সাত্তার দুলাল বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধুমাত্র একজন রাজনীতিবিদ ছিলেন না ।তিনি ছিলেন বহুমাত্রিক গুণাবলীর অধিকারী একজন ব্যক্তিত্ব। তাঁর লেখনি শক্তি, বাগ্নিতা এবং মানুষকে কাছে টানার সম্মোহনী ক্ষমতা ছিল অসাধারণ।
অধ্যাপক ড. জেব-উনন্নেসা, জাতীয় বীর,মুক্তিযোদ্ধা শেখ জামালের বীরত্বগাঁথা ও অজানা অধ্যায় তথ্যসূত্র সহ তুলে ধরেন।
অধ্যাপক আবু সালেক খান বলেন, বঙ্গবন্ধু দূর্নীতিবাজ বলে যাদের আখ্যায়িত করেছিলেন, তাঁর ভাষায় “যে ফাঁকি দেয়,সে দূর্নীতিবাজ।যে ঘুষ খায়,সে দূর্নীতিবাজ। যে স্মাগলিং করে, সে দূর্নীতিবাজ। যে ব্ল্যাকমার্কেটিং করে, সে দূর্নীতিবাজ। যারা কর্তব্য পালন করে না,তারা দূর্নীতিবাজ। যারা বিবেকের বিরুদ্ধে কাজ করে, তারাও দূর্নীতিবাজ। ”
এই দূর্নীতিবাজদের প্রতিহত করার জন্য জনগণের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছিলেন ১৯৭৫ সালের ২৬ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে।

প্রশান্ত কুমার সরকার বঙ্গবন্ধুর শাসনামলের অর্থনৈতিক কর্মতৎপরতা তুলে ধরেন।
মাহমুদা খানম মিলি জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম এবং বঙ্গবন্ধুর পারস্পারিক সৌহার্দ্যতার প্রসঙ্গ তুলে ধরেন।
সেমিনারে বক্তারা বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্নদ্রষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমান্য অবদান তুলে ধরেন।
প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে নিরবচ্ছিন্নভাবে ৩০১টি সেমিনার সফলভাবে আয়োজনের জন্য জানিপপ এবং এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও কে শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানান ।
সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন ঢাকা থেকে আবুল হাসনাত ইরফান এবং ফারিয়া আক্তার।
সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x