জাবি প্রতিনিধি-আসিবুল ইসলাম রিফাত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২১-২২ সেশনের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে যুব রেডক্রিসেন্ট জাবি।
‘I serve’ (আমি সেবাব্রতী) এই মূলমন্ত্র ধারণ করে জাবিতে সেবার ব্রত নিয়ে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে যুব রেড ক্রিসেন্ট। প্রখর রোদে অসুস্থ হয়ে ছুটে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের তাৎক্ষণিক সেবা, তাদের চিকিৎসাকেন্দ্রে পৌছে দেয়া, বিশ্রামের ব্যবস্থা করায় ব্যস্ত সময় পার করছেন স্বেচ্ছাসেবীরা। বয়স্ক রোগীদের ব্লাড প্রেসার মেপে প্রয়োজন অনুসারে স্যালাইন দেয়া, প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে সংগঠনটি।

এছাড়াও, যুব রেডক্রিস্টের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে মাস্ক, স্যানিটাইজার সরবরাহ, জরুরি পরিস্থিতিতে মেডিকেল টিম নিয়োজিত আছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, কলা অনুষদ, পুরাতন কলা ভবন ও জাবি স্কুল এন্ড কলেজের সামনে ৪টি তাঁবুতে মোট ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছে।

এ বিষয়ে যুব রেডক্রিসেন্টের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের সমন্বয়ক ও জাবির সহকারী প্রক্টর মহিবুর রৌফ বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষার সময় দেশের নানা প্রান্তের বিপুল সংখ্যক মানুষের আগমণ ঘটে৷ প্রচন্ড গরম ও ভ্রমণের ক্লান্তিতে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে৷ তাদের জরুরি ভিত্তিতে আমরা সেবা দিচ্ছি। আমাদের ইমারজেন্সি রেসপন্স টীম দ্রুত ছুটে যাচ্ছে। ৪টি তাঁবুতে প্রতিদিন গড়ে ২৫০ জন মানুষকে আমরা চিকিৎসা সেবা দিচ্ছি৷ তারাও অসুস্থতা অনুভব করলে আমাদের কাছেই ছুটে আসছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের কার্যক্রম সম্পর্কে তিনি আরো জানান, ‘ক্যাম্পাসে কার্যক্রম সম্প্রসারিত করতে ত্রিবার্ষিক কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে৷ স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণের জন্য শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণ ও সম্মেলন কেন্দ্র’ নির্মাণ, দুর্যোগ মোকাবেলার প্রস্তুতির সরঞ্জাম সংগ্রহ, স্বতন্ত্র ফায়ার স্টেশন প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণসহ নানা লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি৷ একাজে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাকে সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছ।’

প্রসঙ্গত, রাষ্ট্রপতির অনুমোদনক্রমে ২০১৮ সালের ১০ আগস্ট বাংলাদেশে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) প্রথম ‘যুব রেড ক্রিসেন্ট দল’ প্রতিষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x