বিশ্বজুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র শক্তিগুলোকে আবার কার্যকরী করে তুলতে দৌত্য শুরু করে দিল হোয়াইট হাউস। আগামী মাসেই ভারত, ইসরায়েল, সংযুক্ত আরব আমিরাতকে নিয়ে প্রথমবার চতুর্দেশীয় শীর্ষ সম্মেলন বসতে চলেছে। তাতে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পাশাপাশি ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ইসরায়েলের হয়ে থাকবেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নেফতালি বেনেট এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। এই গোষ্ঠীর নাম দেওয়া হয়েছে ‘আইটুইউটু’ (I2U2)।

আগামী মাসেই ভার্চুয়াল মাধ্যমে প্রথমবার এই জোটের বৈঠকে মুখোমুখি হবেন মোদী, বেনেট, মোহাম্মদ বিন জায়েদ এবং বাইডেন। আলোচ্য সূচিতে থাকবে খাদ্য সুরক্ষা সঙ্কট-সহ পারস্পরিক সহযোগিতার অন্যান্য ক্ষেত্র।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস মঙ্গলবারের সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘এই ভার্চুয়াল শীর্ষ বৈঠকের নাম দেওয়া হয়েছে ‘আইটুইউটু’। ১৩ থেকে ১৬ জুলাই প্রেসিডেন্ট বাইডেনের পশ্চিম এশিয়ার সফর চলাকালীনই প্রথমবার এই বৈঠকে মুখোমুখি হবেন চার রাষ্ট্রপ্রধান। প্রেসিডেন্ট বাইডেন এই বৈঠকের মধ্যে দিয়ে অন্য তিন নেতার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করতে উৎসুক’।

তিনটি দেশই প্রযুক্তির হাব উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ভারতে উপভোক্তা বা গ্রাহকের বিপুল বাজার। পাশাপাশি ভারত উচ্চপ্রযুক্তি এবং অত্যধিক চাহিদাসম্পন্ন পণ্য উৎপাদনের ক্ষেত্রেও বিশিষ্ট স্থানে। তাই, এই ক্ষেত্রগুলোতে এই দেশগুলো একসঙ্গে কাজ করতে পারে। প্রয়োজন অনুযায়ী, প্রযুক্তি, বাণিজ্য, জলবায়ু অথবা কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই নিয়েও পারস্পরিক মত বিনিময় হতে পারে। এমনকি, প্রতিরক্ষা ক্ষেত্র নিয়েও আলোচনা সম্ভব’।

নেড প্রাইস বলেন, ‘শুরু থেকেই আমাদের লক্ষ্য হলো বিশ্বজুড়ে আমাদের জোট এবং অংশীদারিত্বের ব্যবস্থাকে পুনরুজ্জীবিত এবং জোরদার করার পাশাপাশি এমন অংশীদারিত্বকে একত্রিত করা যা আগে বিদ্যমান ছিল না বা থাকলেও তাদের সম্পূর্ণরূপে ব্যবহার করা হয়নি’।

তিনি বলেন, ‘জৈব প্রযুক্তিও গুরুত্বপূর্ণ। ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক গভীর করাও আমাদের একটি লক্ষ্য। এই সম্পর্ক আমরা আরও গভীর করার চেষ্টা করছি। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এই দুটি দেশও অর্থনৈতিক ক্ষেত্র সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের সম্পর্ক আরও গভীর করেছে’।

আগামী ১৩ জুলাই থেকে তিন দিনের পশ্চিম এশিয়া সফর শুরু করবেন বাইডেন। তিনি যাবেন, ইসরায়েল, পশ্চিম তীর, এবং সৌদি আরবে। সেই সফর চলাকালীনই ‘আইটুইউটু’ শীর্ষ সম্মেলনে অন্য তিন দেশের প্রধানের সঙ্গেও মিলিত হবেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x