মোঃ সাইফুল ইসলাম আকাশ ,ভোলা জেলা প্রতিনিধি: ভোলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (৩ জুন) বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ভোলার ২৫টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পরীক্ষা চলাকালে অসদুপায় অবলম্বন করায় বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ৭ জন পরীক্ষার্থীকে আজীবনের জন্য প্রাইমারির সব পরীক্ষা থেকে বহিষ্কার ও ১০ দিন করে জেল প্রদান করা হয়। তারা সবাই পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন ও ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করেছিলেন।
তারা হলেন পশ্চিম বাপ্তা আদর্শ স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র থেকে ওমর ফারুক, মো. সোহাগ,হাবিবুর রহমান, ভোলা সরকারি কলেজ কেন্দ্র থেকে আকলিমা বেগম,ঘুইংগার হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে মো. হাসান, ইলিশা ইউসি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে আল মাহামুদ, মনির হাওলাদার। তাদের সবার কাছে মোবাইল ফোন ও সাদা কাগজে উত্তরপত্র পাওয়া যায়।
ভোলা পশ্চিম বাপ্তা আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজে দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা সাইফুর রহমান বলেন, সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী প্রতিটি কেন্দ্রে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।
তবে পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন নিয়ে প্রবেশ করায় ৩ জনকেই পরীক্ষা হতে বহিষ্কার করা হয়েছে এবং ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। জেলায় সর্বমোট ৭ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা অধিদপ্তর (এনএসআই) ভোলার টিমের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের মোবাইল ফোনসহ পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে আটক করা হয়।
জেলায় ৩ ধাপের ২৪৪টি সহকারী শিক্ষক পদের বিপরীতে ২৫টি কেন্দ্র পরীক্ষায় অংশ নেন ১৫ হাজার ৬৩৭ জন পরীক্ষার্থী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x