মানসিক এবং শারীরিকভাবে যে অবস্থায় আছেন, তাতে নিজেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার জন্য উপযুক্ত মনে করছেন না সাকিব আল হাসান। তাই আসছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে ছুটি নিতে চান এই অলরাউন্ডার।

রবিবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার আগে সাংবাদিকদের সাকিব নিজেই এসব কথা বলেছেন।

আফগানিস্তান সিরিজে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে খুবই হতাশ সাকিব। নিজেকে একজন ‘প্যাসেঞ্জার’ বলে মনে হয়েছে তার। এখন তার যে মন-মানসিকতা, তাতে দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলা ঠিক হবে না বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুসের সঙ্গে আলাপ করেছেন বলে জানিয়েছেন সাকিব।

সাকিব বলেন, ‘আমি এই কথা জালাল ভাইয়ের সঙ্গে আলাপ করেছি আজকে। উনি বলেছেন, দুই দিন উনি চিন্তা করবেন, আমাকেও চিন্তা করার সময় দিয়েছেন। তার পর একটা সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত বা হবে বলে আমি মনেকরি।’

সাকিব যোগ করেন, ‘এখন যেমনটা মনে হচ্ছে, যদি এ রকম মন মানসিকতা থাকে, ফিজিক্যাল কন্ডিশন থাকে, মেন্টাল কন্ডিশন থাকে, তবে সেটা দলের জন্যই ক্ষতি হবে।’

সাকিব আরো বলেন, ‘আমি যেটা মনে করি, আমার নিজের প্রতি নিজের যে প্রত্যাশা, মানুষ যে ধরনের পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করে, সেটা যদি আমি করতে না পারি, সেখানে প্যাসেঞ্জার হয়ে থাকাটা খুবই দুঃখজনক হবে। টিমমেটদের সঙ্গে চিট করার মতো ব্যাপার হবে বলে আমি মনেকরি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x