মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুর পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সাবেক মেয়র মোতাছিম বিল্লাহ তাঁর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, পৌরসভার দরিদ্র পরিবারের মা–বাবাকে তাঁদের মেয়ের বিয়ের সময় পৌরসভার পক্ষ থেকে ‘বিবাহের উপহার’ নামে কার্ড দেওয়া হবে । যাতে মেয়েদের বিয়ে দিতে অর্থনৈতিক সমস্যায় পড়তে না হয়।
আজ শনিবার মেহেরপুর প্রেসক্লাবে বেলা ১১টায় তিনি এ ইশতেহার ঘোষণা করেন। ১৫ জুন এ পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মোতাছিম বিল্লাহ বলেন, পৌরসভার নারীদের জন্য নানামুখী উদ্যোগ নেবেন তিনি। অসচ্ছল মা-বাবাদের বিবাহ কার্ডের মাধ্যমে পৌর সেবা ফান্ড থেকে এককালীন টাকা দেওয়া হবে। পৌর শহরের নারীদের হাতের কাজের প্রশিক্ষণ, অর্থনৈতিক সহযোগিতা, নারী মেলা ও উদ্যোক্তা নারী সেবা ডেস্ক চালু করা হবে।

 

এ সময় পৌরসভার সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন দ্রুত পরিশোধের নিশ্চয়তা দেওয়া হয়। ভবিষ্যতে মাসিক বেতন বোনাস বকেয়া না রাখার বিষয়ে সর্বোচ্চ নিশ্চয়তা দেন তিনি।

 

ইশতেহার ঘোষণার সময় তিনি আরও বলেন, পৌর শহরের হৃৎপিণ্ড গড় পুকুরকে আধুনিক মানের তৈরি করে মানুষের বিনোদনের স্থানে রূপান্তর করা হবে। ইঞ্জিনচালিত রিকশা, অটোরিকশার বর্তমান লাইসেন্স ফি চার ভাগের তিন ভাগ কমিয়ে আনা হবে। সেই সঙ্গে অটোরিকশা ও রিকশাচালক ভাইদের জীবনযাত্রার মানকে আরও উন্নত করতে সার্বিক সহযোগিতা দেওয়া হবে, নিরাপদ পানির সরবরাহের ওপর বিশেষ নজরদারি রাখতে নিয়মিত ব্লিচিং ওয়াশ করা হবে এবং চাহিদা মতো সর্বাধিক নিরাপদ পানি সরবরাহ করা হবে। পৌরসভা পরিচ্ছন্নকর্মীদের পৌরসভার নিজস্ব জমিতে ‘আবাসন প্রকল্প’ চালু করে একটি ঘর উপহার দেওয়া হবে। এ ছাড়া, পরিচ্ছন্নকর্মীদের সর্বনিম্ন পাঁচ হাজার টাকা বেতন দেওয়া হবে। ঝরে পড়া শিশুদের স্কুলমুখী করে তোলাসহ শহরের অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপকরণ, চলমান গড় মসজিদ নির্মাণের সুবিধার্থে ও গড় মসজিদের সর্বোচ্চ সৌন্দর্যবর্ধন করতে পৌরসভা সব সময় পাশে থাকবে। এমনকি শহরের সব মসজিদ-মন্দির ও ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোর উন্নয়নকাজে পৌরসভা অংশগ্রহণ করবে এবং পৌর শ্মশান ঘাটে রাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x