রাজধানীর দক্ষিণখানে ধর্ষণের অভিযোগে ওয়ালীউলাহ রবিন (অলি) ৩১ নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে দক্ষিণখান থানা পুলিশ। বাদিনীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অলি রাজধানীর উত্তরখান এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। সে দক্ষিণখানে ময়লা ব্যবসা করে। নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে ঢাকা ১৮ আসনের বড় বড় নেতাদের সাথে চলাফেরা করে বলে জানায় এলাকাবাসী।।

ভিকটিম বাদিনী সালমা-৩৫ (ছদ্মনাম) এজাহারে উল্লেখ করেন- অলি তার পূর্ব পরিচিত, স্বামীর বন্ধু। প্রায়শই বিভিন্ন অজুহাতে তার পূর্ব গাওয়াইর ভাড়া বাসায় আসতো। অধিকাংশ সময় বিভিন্ন রকম কুপ্রস্তাব দিয়ে আসলেও আমি তা আমলে নেইনি স্বামীর বন্ধু বলে। গতকাল ০৬-০৬-২২ইং আমার স্বামী ও সন্তান চালাবন নামক স্থানে তার বোনের বাড়িতে বেড়াতে গেলে আনুমানিক ১০.৫০মিঃ অলি আসে। কিছু সময় অপেক্ষা করবে বলে জানায়। এক পর্যায়ে আনুমানিক ১১.১০মিঃ আমার শয়নকক্ষে জোরপূর্বক প্রবেশ করে ছিটকিনি আটকিয়ে দেয়।
আমাকে কিল, ঘুষি মেরে গলা চেপে ধরে। আমার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে অলি কৌশলে পালিয়ে যায়। সকালে আমাকে নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়।
আজ ০৭-০৬-২২ইং আত্মীয় স্বজনের অনুমতিক্রমে দক্ষিণখান থানায় এজাহার দায়ের করি।
এ বিষয়ে দক্ষিণখান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ আজিজ জানান- এজাহারের পরে আমরা অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। আইনী প্রক্রিয়ায় যাবতীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করবো।।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x