দফায় দফায় আলোচনার পরও থামছে না ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা। বিগত আট দিনে দেশটির বিভিন্ন শহর দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী।

এদিকে, ইউরোপের এ দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ থামাতে আলোচনায় মধ্যস্থতাকারী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন সৌদি আরবের যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান, যিনি এমবিএস হিসেবেই অধিক পরিচিত।

বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) রাতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনে আলোচনার সময় তিনি ওই প্রস্তাব দেন বলে গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে।

বিশ্ব তেল সরবরাহকারী সংস্থা ‘ওপেক’-এর অন্যতম সদস্য সৌদি আরব। রাশিয়া ওই সংস্থা পর্যবেক্ষক সদস্য। দু’দেশের কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক যোগাযোগও দীর্ঘ দিনের। সৌদি যুবরাজ ফোনে পুতিনকে জানিয়েছেন, মস্কোর স্বার্থ অক্ষুন্ন রেখেই সমস্যার রাজনৈতিক সমাধানের পথ খোঁজার প্রয়াসে সামিল হতে চান তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনাচক্রে বৃহস্পতিবার রাতে যুদ্ধ থামানোর উদ্দেশ্যে পুতিনের সঙ্গেও সরাসরি আলোচনার বসার প্রস্তাব দিয়েছেন ইউক্রনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। বেলারুশ সীমান্তে দ্বিপাক্ষিক প্রতিনিধি স্তরের দ্বিতীয় দফার শান্তি বৈঠকের পর তিনি বলেন, “যুদ্ধ বন্ধ করার এক মাত্র পথ, আমার সঙ্গে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের মুখোমুখি আলোচনা।”

তবে জেলেনস্কির ওই প্রস্তাবের বিষয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি রাশিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x