ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে কাঙ্ক্ষিত শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছে। ইউক্রেন-বেলারুশ সীমান্তের কাছে একটি স্থানে এ আলোচনায় বসেছেন দুই দেশের প্রতিনিধিরা।

আলোচনায় জ্বলন্ত ইস্যু হিসেবে থাকছে যুদ্ধবিরতি ও ইউক্রেন থেকে রাশিয়ার সেনা প্রত্যাহার। আল জাজিরার খবরে বলা হয়, আলোচনায় ইউক্রেন যুদ্ধবিরতির দাবি জানিয়েছে।

সোমবার কিয়েভের প্রতিনিধিদল রুশ প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় অংশ নিতে ইউক্রেন-বেলারুশ সীমান্তে পৌঁছান। পূর্ব বেলারুশের গোমেলে এ আলোচনা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রাশিয়ার বার্তাসংস্থা রিয়া নভস্তির খবরে বলা হয়, দুটি হেলিকপ্টারে করে ইউক্রেনের প্রতিনিধিরা আলোচনাস্থলে এসে পৌঁছান।

এদিন সকালে আলোচনা কক্ষের একটি ছবি প্রকাশ করে বেলারুশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, এটি দুই পক্ষকে এক টেবিলে বসানোর জন্য প্রস্তুত।

রুশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে রয়েছেন প্রেসিডেন্ট পুতিনের ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত ভ্লাদিমির মেদিনস্কি। আছেন রাশিয়ার সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রীও। তারা গত শনিবারই গোমেলে পৌঁছেছেন।

প্রাথমিকভাবে বেলারুশে বৈঠকে অংশ না নেয়ার কথা জানিয়েছিল ইউক্রেন। পরে এ নিয়ে বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কোর সঙ্গে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির আলোচনা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x