রাজশাহী প্রতিনিধি : বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি ওমর ফারুকের উপর সন্ত্রাসী হামলাসহ সাংবাদিকদের খুন, গুম ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে রাজশাহীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১১ টায় রাজশাহী নগর ভবনের পশ্চিমে দড়িখরবনা মোড়ে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের (আরইউজে) আয়োজনে এই মানববন্ধন করা হয়।

রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও কালের কণ্ঠের ব্যুরো প্রধান রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও যুগান্তরের রাজশাহী প্রতিনিধি তানজিমুল হক, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও একুশে টিভির রাজশাহী বিভাগীয় প্রতিনিধি বদরুল হাসান লিটন, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী পরিষদ সদস্য শরিফ সুমন, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ-সভাপতি তৈয়বুর রহমান, সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য ও সময় টেলিভিশনের রাজশাহী ব্যুরো প্রধান সাইফুর রহমান রকি, সিনিয়র সদস্য জাবেদ অপু, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী ফটোসাংবাদিক এ্যাসেসিয়েশনের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমূখ। মানববন্ধন অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ন-মহাসচিব ও জিটিভির রাজশাহী প্রতিনিধি রাশেদ রিপন।

মানববন্ধনে বক্তারা সাংবাদিকদের সকল হামলা, মামলা, হত্যা, খুন-গুমের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমাদের দেশের সাংবাদিকরা আজ কোথাও নিরাপদ নয়। ঘরে কিংবা বাহিরে আবারও কর্মক্ষেত্রে দেশে সাংবাদিকদের উপর নির্যাতন বেড়ে গেছে। পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে দেশের কোথাও না কোথাও প্রতিনিয়ত সাংবাদিকরা লঞ্চিত হচ্ছে। এমন ভাবে সাংবাদিকতের উপর নির্যাতন চলতে থাকলে দেশেও নিরাপদ নয় এবং সাংবাদিকতার পেশায় টিকে থাকা কঠিন হয়ে যাবে।

সাংবাদিকদের সর্বোচ্চ সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিকের সভাপতি ওমর ফারুকের উপর যেখানে হামলা হয় তাহলে আর কি বাকি থাকে। এতেই বোঝা যায় সাংবাদিকতার কঠিন সময় যাচ্ছে। তাই আগামীতে সাংবাদিকতায় টিকে থাকা ও নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে তীব্র প্রতিবাদ ও আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, দেশে সাংবাদিকরা হামলা মামলা ও হত্যা, নির্যাতন ও গুমের শিকার হচ্ছেন। কোথাও সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নেই। যেসব সাংবাদিকরা অন্যায়, দুর্নীতিসহ নানান অনিয়মের বিরুদ্ধে লিখছে তাদের টার্গেট করে মামলাসহ হত্যা করা হচ্ছে। রাঙ্গামাটি জেলার কালের কণ্ঠের সাংবাদিক ফজলে এলাহীকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

ডিবিসি নিউজের সাংবাদিক আব্দুল বারির লাশ ঢাকার হাতির ঝিলে এলাকা থেকে ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সাংবাদিকের সবচেয়ে বড় সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিকের সভাপতি ওমর ফারুকের উপর সন্ত্রাসী হামলা করা হয়েছে। সাংবাদিকদের উপর হামলা হলে, খুন হলে তাদের জন্য কোন বিচার পাওয়া যায়না। কেউ গ্রেপ্তার হয় না। সরকারের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এগুলো দেখে না , গ্রেপ্তার করে না বলে তিনি অভিযোগ তুলে, সরকারের প্রতি হুশিয়ারি প্রদান করে বলেন, অবিলম্বে এগুলো বন্ধ করতে হবে। নইলে সাংবাদিকরা কঠোর আন্দোলন ও রাস্তায় নেমে পড়ছে।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনাকে কেউ কেউ ক্ষমতা থেকে নামানোর জন্য নীল নকশা আঁকছে, অপকর্ম করছে। আপনাকে ক্ষমতা হতে টেনে নামার জন্য সাংবাদিকদের উপরও হামলা, খুন-গুম করা হচ্ছে। তাই অবিলম্বে এদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x