আসছে ৪ নভেম্বর সংবিধান দিবসে বাংলাদেশের বিচার বিভাগের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ‘থিমলোগো’ উন্মোচন করা হয়েছে।
কোর্টের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে আজ সুপ্রিমকোর্টের জাজেস লাউঞ্জে ‘থিম লোগো’ উন্মোচন করেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।
এ সময় সুপ্রিমকোর্ট সংবিধানের রক্ষক উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতিগণ শুধুমাত্র সংবিধানের সুরক্ষা প্রদানই করে না, বরং বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে এবং বাঙালি সাংস্কৃতিক এবং মননগত কাঠামো বিনির্মাণে বরাবরই অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।
প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, জনগণের প্রাত্যাহিক জীবন এবং রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক কাঠামো সংরক্ষণে সুপ্রিমকোর্টের দেয়া রায়সমূহ গভীর তাৎপর্য বহন করে আসছে। আর জাতির বিভিন্ন ক্রান্তিলগ্নে জাতীয় জীবনে সুযোগ্য নেতৃত্ব প্রদান করে যাচ্ছেন সুপ্রিমকোর্ট বারের আইনজীবীরা।
সংবিধান ও সুপ্রিমকোর্টের ৫০ বছর পূর্তি সম্পর্কে প্রধান বিচারপতি বলেন, এক মনোরম তুলনাহীন সন্ধিক্ষণে আমাদের মহান সংবিধান আর সুপ্রিমকোর্টের যুগপৎ অর্ধশতবছর পূরণ হতে যাচ্ছে সহসাই। অনুপম সে মুহূর্তমালার যথার্থ উদ্যাপনে নানান কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট, চলছে সর্বাত্মক প্রস্তুতি। আর তারই অংশ হিসেবে আজকের এই থিম লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন। লোগোর শ্বেতশুভ্র পটভূমিতে স্বর্ণবর্ণ চিত্ররেখায় অলংকৃত সংবিধান ও সুপ্রিমকোর্ট পরস্পর সংলগ্ন হয়ে আছে আজন্ম সুহৃদের মত। সার্থক উপমা পেয়েছে স্বর্ণাক্ষরে লেখা সংবিধান আর ঘোর অমানিশা শেষে ন্যায় বিচারের আলো ঝলমলে দিন। পাশাপাশি যুগ বাহিত সাবেকি ঘরানার বাংলা হরফে জ্ঞাপিত হয়েছে সম্ভ্রান্ত ঐতিহ্য সচেতনতা।
সুপ্রিমকোর্টের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার জেনারেল গোলাম রব্বানীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ও বিচারপতি ওবায়দুল হাসান।বাসস

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x