রিয়াদ প্রতিনিধি

সৌদি আরবে অবৈধ অভিবাসীদের ধরপাকড় অব্যাহত রয়েছে। সর্বশেষ গত এক সপ্তাহে রেসিডেন্সি আইন, শ্রম আইন, এবং সীমান্ত আইন অমান্য করার অপরাধে ১৬ হাজার ৬০৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সৌদি আরবের জেনারেল ডিরেক্টরেট অফ পাসপোর্ট (জাওয়াজাত), সৌদি আরবের বিভিন্ন নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বাহিনীর যৌথ অভিযানে এসব প্রবাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিগত ৮ সেপ্টেম্বর থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত এক সপ্তাহে সৌদি আরবে রেসিডেন্সি আইন অমান্য করার অপরাধে ৯ হাজার ৮৯৫ জন, সীমান্ত আইন অমান্য করার অপরাধে ৪ হাজার ৪২২ জন, এবং শ্রম আইন ভঙ্গ করার অপরাধে ২ হাজার ২৮৯ জন প্রবাসীকে গ্রেপ্তার করা হেয়েছে।

এছাড়া অবৈধ উপায়ে সীমান্ত পেরিয়ে সৌদি আরবে প্রবেশের সময়ে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৩৬২ জনকে। এর মাঝে ৩৫ শতাংশ ইয়েমেনি, ৬০ শতাংশ ইথিওপিয়ান, এবং ৫ শতাংশ অন্যান্য দেশের নাগরিক ছিলেন। অবৈধ উপায়ে সীমান্ত পার হয়ে সৌদি আরব থেকে পালানোর সময় হাতেনাতে আটক করা হয়েছে ১৯ জনকে।

অবৈধ উপায়ে সীমান্ত পার হয়ে সৌদি আরবে প্রবেশকারী অভিবাসীদের সীমান্ত পার হওয়া, পরিবহণ, এবং আশ্রয় প্রদান করে সাহায্য করার অপরাধে ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় থেকে জানানো হয়, রাজ্যে অবৈধ অভিবাসী প্রবেশে সহায়তা, পাঁচার এবং আশ্রয় প্রদানের সাথে সংশ্লিষ্ট যে কাউকে ১৫ বছরের জেল বা ১ থেকে ২৬ মিলিয়ন সৌদি রিয়েল জরিমানা করা হবে।

সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সতর্ক করেছে যে যে কেউ সীমান্ত সুরক্ষা বিধি লঙ্ঘন করে কাউকে রাজ্যে প্রবেশের সুবিধার্থে ধরা পড়ে বা তাকে পরিবহন বা আশ্রয় বা যে কোনো উপায়ে কোনো সহায়তা বা পরিষেবা সরবরাহ করে তাকে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

শ্রম ও অভিবাসী আইন লঙ্ঘনকারীদের ব্যাপারে কোন তথ্য থাকলে মক্কা এবং রিয়াদে ৯১১ এবং বাকি এলাকা গুলোতে ৯৯৬ বা ৯৯৯ রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x