29 November, 2020
শিরোনাম

রাঙ্গুনিয়াতে চলাচলে রাস্তা বন্ধ করে দিল পাশ্বর্বতী একটি পরিবার

 19 Nov, 2020   118 বার দেখা হয়েছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি মোহাম্মদ এরশাদ চৌধুরী::চট্টগ্রাম রাঙ্গুনিয়া উপজেলাধীন ৬নং পোমরা ইউনিয়নের ৩নং ওয়াডের সাম তালুকদার বাড়ির আহমদুল হক প্রকাশ আহমদ সওদাগর তার পাশ্বর্বতী কয়েকটি পরিবারের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে৷ গত ৩ অক্টোবর ২০২০ সাল আহমদুল হক বাদী হয়ে রাঙ্গুনিয়া মডেল থানায় একটি অভিযোগ করেন৷অভিযোগে ওসমান,আনোয়ারসহ কয়েকজনের নাম অভিযুক্ত করে পৈতৃক আমলের আগে চলাচলে ব্যবহারকৃত রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছেন বলে অভিযোগে উল্ল্যেখ করেন৷ স্থানীয় কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় চলাচলে রাস্তা উম্মুক্ত করে দিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দুর রহমান কয়েকদফা দুই-পক্ষকে নিয়ে বৈঠক করেও কোন মিমাংসা হয়নি,পরবর্তিতে পোমরা ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশনায় ৩নং ওয়াডের সদস্য আবু মেম্বার বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেন এতেও কোন ফল আসেনি৷

চলাচলে রাস্তাটি উম্মুক্ত করে দিতে আহমদুল হক লিখিত অভিযোগ জানান রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকট অভিযোগটি সত্যতা যাছাই করতে থানা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্দেশনা প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে৷ ঘটনার সত্যতা জানতে রাস্তা বন্ধ করার দায়ে অভিযুক্তদের মধ্যে আনোয়র ও ওসমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে আনোয়ার জানান আমাদের নিজস্ব কবলার অন্তভূক্ত জায়গা দিয়ে জোর পূর্বক চলাচল করে আসছে আহমদুল হক ও তার পরিবার,তিনি আরো বলেন আহমদুল হক তার নিজের জায়গাতে চলাচলের রাস্তা না রেখে পুরোটা ঘর তৈরি করেছেন৷

আনোয়ার জানান কাগজে পত্রে যদি আহমদুল হক চলাচল করতে রাস্তার দাবীদার হয়ে থাকেন আমরা রাস্তা ছেড়ে দিব৷ অভিযোগকারী আহমদুল হক জানান আমার দাদা বাবার আমল থেকে সাম তালুকদার বাড়িতে বসাবাস করে আসছি,আমরা বিগত সময় থেকে রাস্তাটি ব্যবহার করে আসছি কিন্তু আমার পাশ্বর্তী পরিবারের ওসমান ও তার পরিবারের লোকজন অনেক বছর থেকে আমার পরিবারের সাথে নানাভাবে শত্রুতা করে আসছে এক দিকে না হলে অন্যদিকে আমাদের সাথে ঝামেলা করেন আমি ব্যবসায়ী মানুষ আমি ঝামেলা এড়িয়ে চলতে চাই,তারা পরিবার বড় কথা কথায় মারার জন্য দৌড়ে আসে৷ আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভোগতেছি৷ বছর দুই বছর আগেও আমাদের মারধর করেছেন যা নিয়ে শালিসি বৈঠকও হয়েছে৷আমাদের চলাচলে রাস্তার মাঝকানে টয়লেট স্থাপন করেছে যা একটি সভ্য সমাজে কেউ করতে পারেনা৷

আইনের আশ্রয় নিয়েছি আইন যা করে তা মেনে নিব৷ স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানাগেছে দু-পক্ষের জায়গাসহ নানা বিষয়ে ঝামেলাগুলো অনেক পুরানো,অনেকে সমাধান করার চেষ্টা করেছেন কিন্তু এক পক্ষ মানলে আর এক পক্ষ মানেনা৷ রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী দপ্তর কতৃক জানা গেছে অভিযোগটির বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে,চলাচলের রাস্তাটি বন্ধের ঘটনা সত্যতা পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত কঠোর ব্যবস্তা নেওয়া হবে৷৷ স্থানীয় প্রতিনিধিদের মাধ্যম থেকে জানা গেছে বিষয়টি সমাধান করার জন্য দুই পক্ষকে নিয়ে কয়েকদফা বৈঠক করা হয়েছে,এখনও মিমাংসার চেষ্টা চলছে৷

সম্পর্কিত খবর
সব খবর
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | বাংলা৫২নিউজ.কম
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি এবং অপরাধ