নিজস্ব প্রতিবেদন। রাজধানীর ঢাকা আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহান আরা বেগমের মেয়াদ শেষে তাকে আবারও নিয়োগ দেওয়ার পায়তারা করে চলছে সুবিধা ভোগীরা।

তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ থাকায় প্রতিষ্ঠানটিতে নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি জানিয়েছে আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ অভিভাবক ফোরাম সহ সাধারণ অভিভাবকরা। বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) অভিভাবক ফোরাম থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বর্তমান অধ্যক্ষের মেয়াদ আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে। অভিভাবক ফোরামে তাদের সভায় আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগ দেওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির কাছে দাবি জানিয়েছেন। সভায় আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম, নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। ফোরাম ২০২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে সরকারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানানো হয়। এছাড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির বর্তমান অধ্যক্ষ ড. শাহান আরা বেগমের চাকরির মেয়াদ শেষে একজন দক্ষ, অভিজ্ঞ ও সৎ অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বর্তমান অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দুর্নীতিসহ নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগ দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) তদন্তাধীন থাকায় এ পদে তাকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিতে গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ ও নিন্দা প্রকাশ করা হয় সভায়। কোনো বিতর্কিত দুর্নীতিপরায়ণ ব্যক্তিকে আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ না দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান তারা। অভিভাবক ফোরাম আরও মনে করে যে, বর্তমান অধ্যক্ষ মাসিক বেতন-ভাতা বাবদ সাড়ে তিন লাখ টাকা উত্তোলন করেন। তাকে এ পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিলে সম্পূর্ণ টাকা প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ফান্ড থেকেই ব্যয় হবে। ফলে একদিকে প্রতিষ্ঠান আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের অত্যধিক টিউশন ফি বৃদ্ধি পাবে যা করোনাকালে অভিভাবকদের ওপর মরার ওপর খাড়ার ঘা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, অধ্যক্ষ পদে চুক্তিভিত্তিক কোনো নিয়োগ এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ২৭ হাজার শিক্ষার্থী ও তাদের ৫৪ হাজার অভিভাবকরা কোনোভাবেই মেনে নেবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x