সাধারণ মানুষকে সরে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভসহ চারটি শহরে ‘হিউম্যান করিডোর’-এ সম্মত হয়েছে রাশিয়া।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স এ কথা জানিয়েছে। খবর আলজাজিরা’র।

সোমবার মস্কোর স্থানীয় সময় ১০টা থেকে কিয়েভ ছাড়াও খারকিভ, মারিউপল ও সুমি শহরে এই ‘হিউম্যান করিডোর’ কার্যকর হবে। এ সময় অস্ত্রবিরতি মেনে চলবে রুশ বাহিনী।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে এই শহরগুলোর পরিস্থিতি বিবেচনায় ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর ব্যক্তিগত অনুরোধে ‘হিউম্যান করিডোর’-এ রাজি হয় রাশিয়া।

এদিকে রাজধানী কিয়েভে সর্বাত্মক হামলার জন্য রুশ বাহিনী প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা সতর্ক করেছেন।

চলমান যুদ্ধ পরিস্থিতির সবশেষ তথ্য নিয়ে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর জেনারেল স্টাফের দেওয়া বিবৃতিতে এ সতর্কতা দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া রুশ বাহিনী পূর্বাঞ্চলীয় শহর খারকিভ, চেরনিহিভ, সুমি ও দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মিকোলায়িভকে ঘেরাও করে রাখার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বলে ইউক্রেনের কয়েকজন কর্মকর্তা বিবিসিকে জানিয়েছেন।

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর চলমান সামরিক অভিযানের ১২তম দিন সোমবার। আজ দু’দেশের প্রতিনিধিদলের মধ্যে তৃতীয় দফা বৈঠক হওয়ারও কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x