Sunday , 3 March 2024
শিরোনাম

কুড়িগ্রামে মাস ব্যাপী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের লিফলেট বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের দলীয় হাই কমান্ডের নির্দেশনায় যুবলীগ নেতা এডভোকেট হাজি দুলাল এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ করছেন এবং বর্তমান সরকার যে সব উন্নয়ন করেছেন সেই উন্নয়নগুলো তুলে ধরে লিফলেট আকারে তা সাধারণ মানুষের কাছে বিলি করে আগাম নৌকা মার্কায় ভোট চাচ্ছেন।

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কুড়িগ্রাম-২ সদর আসনে নৌকা প্রতীক তথা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এডভোকেট রুহুল আমিন দুলাল সরকারের উন্নয়নের চিত্র লিফলেট প্রায় একমাসে ধরে বিতরণ করছেন। হাজী দুলাল আওয়ামী লীগের রাজনীতি সাথে জড়িত। বর্তমান তিনি কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও জেলা যুবলীগের আহবায়ক এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

অ্যাডভোকেট হাজী দুলালের পক্ষ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সরকারের উন্নয়নের তথ্য তুলে ধরে আবারো বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে এবং কুড়িগ্রাম সদর আসনটি জাতীয় পার্টির দখলমুক্ত করার লক্ষ্যে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে গণসংযোগ ও মাস ব্যাপী লিফলেট বিতরণ করছেন। এতে করে তিনি সাধারণ মানুষের পেয়েছেন ভালবাসা তেমনি কুড়িয়েছেন ব্যাপক জনসমর্থন।

এরই ধারাবাহিকতায়, সোমবার ১৮ সেপ্টেম্বর বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার নাজিমখাঁন ইউনিয়নের বাজারে সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে এ লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ করেন।

উক্ত গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আকবর আলী সরকার, নাজিমখাঁন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম আমিন, নাজিমখাঁন ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবেদুর রহমান, ইউনিয়ন যুবলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাসেম আলী সহ আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এলাকায় পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিত হাজী দুলাল বলেন, “স্বাধীনতার পর মাত্র একবার উপনির্বাচনে আমরা আওয়ামী লীগের এমপি পেলেও গুরুত্বপূর্ণ সদর এ আসনটি বরাবরই জাতীয় পার্টির দখলে থাকে। বর্তমান জাতীয় পার্টির এমপি থাকলেও তিনি এলাকার নদী ভাঙ্গন রোধ ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ব্যর্থ হয়েছেন। সমন্বয়ের অভাবে মহাজোটের এমপি হলেও দূরত্ব বেড়েছে আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে। এতে করে অন্যান্য জেলার তুলনায় আমাদের কুড়িগ্রাম জেলা তথা সদর আসনটি অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে এবং বেড়েছে দারিদ্রতা। আমি আশাবাদী জননেত্রী শেখ হাসিনা মানবতার মা তিনি কুড়িগ্রাম সদর আসনে এবার নৌকা মার্কার প্রার্থী দেবেন।”

তিনি আরো বলেন, “কুড়িগ্রামে মোট ৪টি সংসদীয় আসন তারমধ্যে কুড়িগ্রাম সদর আসনটি সবচাইতে বড়। এটি ফুলবাড়ী উপজেলা, কুড়িগ্রাম সদর ও রাজারহাট উপজেলা নিয়ে সংসদীয় আসন কুড়িগ্রাম-২ গঠিত। তাই রাজনৈতিক ভাবে এ আসনটি অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জেলার অন্যান্য উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী থাকলেও সদর আসনে নৌকা না থাকায় তৃণমূল আওয়ামী লীগ কর্মীদের মাঝে অনেক হতাশা ও ক্ষোভ বিরাজমান। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তাদের একটাই দাবি এবার কুড়িগ্রাম সদর আসনে নৌকা মার্কা দিতে হবে।”

 

ইতোমধ্যে তাকে অনুসরণ করে কুড়িগ্রাম জেলা সহ অন্যান্য জেলা শহর গুলোতেও আওয়ামী লীগ নেতাদের বর্তমান সরকারের উন্নয়নের চিত্র সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করতে দেখা যাচ্ছে।

 

২ মার্চ ২০২৩ বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল যে ভোটার তালিকা প্রকাশ করেন, সে অনুযায়ী বর্তমানে দেশের মোট ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জন। ২০১৮ সালের তথ্য অনুযায়ী কুড়িগ্রাম জেলার সংসদীয় আসনগুলোর মধ্যে ভোটার সংখ্যার দিক দিয়ে; (কুড়িগ্রাম-১: ৪৬১৪১৬,  কুড়িগ্রাম-২: ৪৯৩৩৩৬, কুড়িগ্রাম-৩: ৩০৩০১৩, কুড়িগ্রাম-৪: ২৮৯১১৭) কুড়িগ্রাম-২ সদর আসনটি সবচাইতে বড় ও এখানে ভোটার সংখ্যাও বেশি।

Check Also

দীর্ঘ ২০ বছর পর রাণীশংকৈল পৌরসভার নিজস্ব ভবনের ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপন। 

  আনোয়ারুল ইসলাম, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি।। প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ২০ বছর পর রবিবার ৩ মার্চ সকালে ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x