সরকারিভাবে বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট এন্ড সার্ভিসেস লিমিটেড- বোয়েসেলের মাধ্যমে কুয়েতে পৌঁছেছেন ৫০ নার্স।

রবিবার (১৯ জুন) ভোরে কুয়েতের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়েন প্রথম ব্যাচের ৫০ জন নার্স। এর আগে শনিবার তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

প্রথম ধাপে যাঁরা গেলেন, তাঁদের মধ্যে ডিপ্লোমা ডিগ্রিধারী এবং বিএসসি ডিগ্রিধারী নার্স রয়েছেন। বিএসসি পাস নার্সদের বেতন ৯০ হাজার টাকা ও ডিপ্লোমা পাস নার্সদের বেতন ৮০ হাজার। বছরে বেতন বৃদ্ধি ১০ কুয়েতি দিনার। কুয়েতের শ্রম আইন অনুযায়ী ওভারটাইম পাবেন।

শনিবার ( ১৮ জুন) প্রবাসী কল্যাণ ভবনে বিজয় ৭১ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে নার্সদের কুয়েতে যাওয়ার পদ্ধতি ও বিস্তারিত তথ্য জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

সচিব বলেন, করোনার প্রভাব কাটিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন শ্রমবাজারে বাংলাদেশি কর্মী যাওয়ার ধারা অব্যাহত রয়েছে। একই সাথে নতুন করে বিভিন্ন দেশে দক্ষ কর্মী ও পেশিজীবীরাও যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে কুয়েতে উচ্চ বেতন ও সুযোগ সুবিধায় নার্স নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। এটি বৈদেশিক কর্মসংস্থানে নতুন মাত্রা শুরু হলো।

কুয়েতে আরো নার্স নিয়োগের সুযোগ রয়েছে উল্লেখ করে সচিব আরও বলেন, কুয়েতের বিভিন্ন হাসপাতাল বাংলাদেশ থেকে নার্স নিতে আগ্রহ প্রকাশ করছে।

সংবাদ সম্মেলনে,উপস্থিত ছিলেন বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. বিল্লাল হোসেনসহ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য এবং কর্মকর্তারা। এসময় কুয়েতগামী নার্সদের নিয়োগপত্র তুলে দেন প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

বোয়েসেলের মাধ্যমে এই প্রথম বাংলাদেশ হতে কুয়েতের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে নার্স নিয়োগ হতে যাচ্ছে। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কুয়েতের স্বাস্থ্যখাতসহ অন্যান্য খাতেও কর্মী প্রেরণের দুয়ার উন্মোচন হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বোয়েসেল সূত্রে জানা গেছে, জাজিরা এয়ারওয়েজের দুটি পৃথক ফ্লাইটে ৫০ জনের প্রথম দল আজ ভোর ৪টা এবং সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে কুয়েতের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। নির্দিষ্ট সময়ে তাঁরা কুয়েতে পৌঁছান। কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আশিকুজ্জামান এবং দূতাবাসের কর্মকর্তারা কুয়েত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁদের স্বাগত জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x