কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্যরা বাংলাদেশী এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। শনিবার রাতে উপজেলার বিলগাথুয়া সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতের নাম লিটন বিশ্বাস (৩৫)। তিনি একই উপজেলার বিলগাথুয়া মাঠপাড়ার আকবর আলী বিশ্বাসের ছেলে।
নিহতের লাশ রাখা হয়েছে ভারতের নদীয়া জেলার হোগলবাড়িয়া থানায়। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবীদ হাসান এ ঘটনা নিশ্চিত করেন।
প্রাগপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুজ্জামান জানান নিহতের পরিবারের উদ্বৃতি দিয়ে জানান লিটন বিশ্বাস ভারত থেকে মালামাল নিয়ে এসে দেশে বিক্রয় করতেন। শনিবার রাত ৯টার দিকে ভারত থেকে মালামাল নিয়ে বিলগাথুয়া সীমান্ত দিয়ে ফিরছিলেন। তার সাথে একই পেশায় নিয়োজিত বাংলাদেশের আরো কয়েকজন ছিলেন।
তিনি জানান এ সময় ১৫১-৬(এস) সীমান্ত পিলার সংলগ্ন ভারতের নদীয়া জেলার হোগলবাড়িয়া থানার মেঘনা সীমান্তে ১৪১ বিএসএফ কমান্ডেন্ট অধিনস্থ মেঘনা ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে লিটন বিশ্বাস নিহত হলে অন্যরা বাংলাদেশ সীমানায় পালিয়ে আসে। পরে বিএসএফ লিটন বিশ্বাসের লাশ উদ্ধার করে হোগলবাড়িয়া থানায় সোপর্দ করে।
দৌলতপুর থানার ওসি জাবীদ হাসান বলেন, ‘ভারতের হোগলবাড়িয়া থানা থেকে ফোন করা হয়েছিল। একজনের মরদেহ সেখানে আছে বলে নিশ্চিত করেছে। হোয়াটস অ্যাপে তারা ছবিও পাঠিয়েছে। খবর শুনে ও ছবি দেখে বিলগাথুয়া গ্রামে লিটনের বাড়িতে খবর পাঠানো হয়েছে।
“তবে এ বিষয়ে লিটনের পরিবার থেকে এখনও কেউ থানাতে আসেনি।
এ বিষয়ে ১৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ প্রাগপুর বিজিবি কোম্পানী কমান্ডার (ভারপ্রাপ্ত) নায়েক সুবেদার আমজাদ হোসেন ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি জানতে চেয়ে আনুষ্ঠানিক পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x