কৃষ্ণ সাগরে পানামার পতাকাবাহী অন্তত তিনটি জাহাজে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। বুধবার (১৬ মার্চ) পানামার সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ বলছে, গত মাসে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর কৃষ্ণ সাগরে পানামার ওই তিনটি জাহাজে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আঘাত হেনেছে।

বিবৃতির মাধ্যমে পানামার সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ বলছে, রুশ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার পর একটি জাহাজ ডুবে গেছে। যদিও এতে কোনো ধরনের হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আর অন্য দুটি জাহাজ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কৃষ্ণ সাগরে চলাচল করেছে।

পানামা মেরিটাইম অথরিটির (এএমপি) প্রশাসক নোরিয়েল আরাউজ বলেছেন, আমাদের তিনটি জাহাজে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। জাহাজের ক্রুদের সবাই সম্পূর্ণ নিরাপদ আছেন। আমাদের জাহাজের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

রুশ মিসাইলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত তিন জাহাজ হল নামুরা কুইন, লর্ড নেলসন এবং হেল্ট। তবে এসব জাহাজ কবে আক্রান্ত হয়েছিল, সে বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু জানায়নি এএমপি।

নোরিয়েল আরাউজ বলছেন, অন্যান্য দেশের পতাকাবাহী অন্তত ১০টি জাহাজ এখনো কৃষ্ণ সাগরে ভাসমান অবস্থাতে আছে। রাশিয়ার নৌবাহিনী ওই এলাকা ছাড়তে জাহাজগুলোকে বাধা দিচ্ছে।

এএমপির তথ্য মতে, বিশ্বে পানামার পতাকাবাহী জাহাজের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। পানামার পতাকাবাহী আট হাজারের অধিক সামুদ্রিক জাহাজ রয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x