জাতিসংঘে দায়িত্ব পালন করা ১২ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে চীন।

চীন বলছে, জাতিসংঘের সদরদপ্তর যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় দেশটির উচিৎ এর সদস্য দেশগুলো যাতে স্বাভাবিকভাবে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারে, সেজন্য প্রয়োজনীয় সুবিধা ও নিশ্চয়তা দেয়া।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়্যাং ওয়েনবিন এসব কথা বলেন। খবর রুশ গণমাধ্যম আরটির।

ওয়্যাং ওয়েনবিন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপে উদ্বিগ্ন চীন এবং আশা করে যে, এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র একটি ব্যাখ্যা দেবে।’

তিনি বলেন, ‘আয়োজক দেশ হিসেবে ক্ষমতার অপব্যবহার ও ইচ্ছামতো একতরফা সিদ্ধান্ত নেয়া উচিৎ নয় (যুক্তরাষ্ট্রের)।’

গত সোমবার জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি আখ্যায়িত করে জাতিসংঘে নিয়োজিত রাশিয়ার ১২ কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের দ্রুত যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করতেও বলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী রাষ্ট্রদূত রিচার্ড মিলস জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলকে বলেন, তারা যুক্তরাষ্ট্রে এমন কর্মকাণ্ডে যুক্ত ছিলেন, যা কূটনীতিক হিসেবে তাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে না। এ কারণেই তাদের দেশ ছাড়তে বলা হয়েছে।

রাশিয়ার জাতিসংঘ দূত ভাসিলি নেবেনজিয়া বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে জানান, আগামী ৭ মার্চের মধ্যে তাদের যুক্তরাষ্ট্র ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ইউক্রেনে রুশ হামলায় ক্ষিপ্ত যুক্তরাষ্ট্র। পুতিনের রাশিয়াকে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে প্রতিদ্বন্দ্বী এ দেশটি। পাশাপাশি অন্য দেশকেও আহ্বান জানাচ্ছে পুতিনকে একঘরে করতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x