ইউরোপ ব্যুরো:

যথাযথ মর্যাদায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করেছে সুইজারল্যান্ডের জেনেভাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

রাষ্ট্রদূত মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ এহসান-ই-এলাহী। প্রথম সচিব ও দূতালয় প্রধান মাহবুবুর রহমানের সঞ্চালনায় শুরুতেই মহামান্য রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ইকোনমিক মিনিস্টার ডঃ মোঃ আল-আমিন প্রামাণিক, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কমার্শিয়াল কাউন্সিলর দেবব্রত চক্রবর্তী, পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সিলর মোঃ কামরুজ্জামান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন প্রথম সচিব (বাণিজ্য) মোঃ আলমগীর কবির।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের ভিত্তিতে শিশুদের জীবন গড়ে তোলার জন্য প্রবাসী অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সমুন্নত রাখতে শিশুদের সঠিক ইতিহাস শিক্ষার প্রতি তিনি বিশেষ জোর দেন। তিনি আরও বলেন জাতির পিতার নেতৃত্বে সকল বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করেছে। জাতির পিতা বাংলাদেশের মানুষকে উন্নয়নের স্বপ্ন দেখিয়েছেন। মাত্র সাড়ে তিন বছরের শাসনে তিনি অসাধারণ সাফল্য দেখিয়েছেন রাষ্ট্রপরিচালনা ও পুনর্গঠনে। বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথ ধরেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দূরদর্শিতা ও মানবিক গুণাবলীর উপর আলোকপাত করেন। অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসাবে স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন জাতির পিতা জীবনসংগ্রামের ফল হিসেবে আজকের বাংলাদেশের শিশুরা একটি সুন্দর সমৃদ্ধ ভবিষ্যত লাভ করেছে।

এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অর্জন, জাতি বিনির্মাণ ও সদ্য স্বাধীন দেশের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক স্থাপনে বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অবদানের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। আলোচনা সভায় প্রবাসী বাংলাদেশের নাগরিকরাও স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

এসময় বক্তব্য রাখেন সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জমাদার নজরুল ইসলাম এবং সুজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শ্যামল খান।

সকালে স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান কর্তৃক জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসটির আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি শুরু করা হয়। এসময় স্থানীয় মিশনে প্রবাসী শিশুদের অংশগ্রহণে একটি চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতা এবং বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে আরও ছিলো জুরিখে বাংলা স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে পূর্ব ধারণকৃত একটি সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x