নিজস্ব প্রতিবেদক: দিনব্যাপী নানান আয়োজনে কুষ্টিয়া শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে প্রতিষ্ঠিত রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। সকাল সাড়ে নটায় উদযাপন কমিটির আহবায়ক ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর নূর উদ্দীন আহমেদ এর সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বেলুন উড়িয়ে ও কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান আলী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার প্রধান উদ্যোক্তা ও বোর্ড অফ ট্রাস্টিজের মাননীয় ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম, ট্রাস্টের সদস্য-সচিব মুহ. শামসুর রহমান বাবু, শেখ মোস্তাফিজুর রহমান, মো. জুলফিকার আলী, মনিরুজ্জামান মোশতাক, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ড. মোছা. ইসমত আরা খাতুন, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এস এম হাসিবুর রশিদ তামিম প্রমূখ।

পরে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা নিয়ে উপস্থিত হয়ে উপহার দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয় কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও অন্যান্য শিক্ষকমণ্ডলীর। কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ থেকে শোভাযাত্রা নিয়ে কুষ্টিয়া সরকারি পলিটেকনিক, আদর্শ ডিগ্রি কলেজ, গড়াই মহিলা কলেজ, কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজ, সেন্ট্রাল কলেজ, পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজ, সৈয়দ মাছ উদ রুমী কলেজর অধ্যক্ষ এবং অন্যান্য শিক্ষকমণ্ডলীর মাঝে বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো সম্বলিত দেয়াল ঘড়ি, মগ, স্যুভেনির ব্যাগ, কলম, ফাইল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরে আনন্দ শোভাযাত্রা শহরের এনএস রোড হয়ে ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়।

বিকেলে শুভেচ্ছা কুপন ড্র, ফ্রী লটারি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদযাপন কমিটির আহবায়ক ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর নূর উদ্দীন আহমেদ এর সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান আলী। গেস্ট অফ অনার হিসেবে উপস্থিত থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা ও আগামী দিনের স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয় কেমন হবে স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার অন্যতম রূপকার সাবেক সফল তথ্যমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক জনাব হাসানুল হক ইনুর অবদানকে স্মরণ করেন। সেইসাথে তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর মোহাম্মদ মামুন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ড. মোছা. ইসমত আরা খাতুন, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রহমান। আলোচনা সভা শেষে শুভেচ্ছা কুপন ড্র এর পুরস্কার হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো সম্বলিত দেয়াল ঘড়ি, মগ, কলম ও অন্যান্য উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x