আব্দুল জব্বার পাবনা ঃ
পাবনার থানার ওসিকে ছয়বার সমন পাঠানো সত্বেও সাক্ষ্য দিতে না আসায় পাবনার আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলীকে এক টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।
মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুরে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জিয়াউর রহমান এ সাজা ঘোষণা করেন।
জরিমানার টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত আদালতের কার্যক্রম যতক্ষণ চলবে ততক্ষণ ওসির কারাদণ্ডেরও আদেশ দেন বিচারক। এ সময় পুলিশের পরিদর্শক রওশন আলী জরিমানার একটাকা পরিশোধ করেন। পরে আদালতের পেশকার হেমন্ত বর্মন সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে জরিমানার টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেন।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা জানান, রওশন আলী আগে পাবনা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) কর্মরত ছিলেন। ২০১৮ সালে ৬ আগস্ট নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এক যুবককে আটক করে একটি মামলা করেন তিনি। এই মামলায় অন্য সব সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত। তবে সহযোগী সাক্ষী হিসেবে রওশন আলীকে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য পরপর ছয়বার সমন পাঠানো হয়। কিন্তু তিনি আদালতে আসেননি। পরে আদালত রওশন আলীর মোবাইলের হোয়াটস অ্যাপে আদালতের সমনের ছবি পাঠান। এতেও কোনো উত্তর না দিয়ে ওসি সাক্ষ্য দেওয়া থেকে বিরত থাকেন।

এর ফলে মামলার স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। তাই গত ২৬ জানুয়ারি ওসিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠান আদালত। নোটিশে কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চান আদালত। এরপর মামলার নির্ধারিত দিনে মঙ্গলবার হাজির হন ওসি। এ সময় তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তবে আগেও সমন অবজ্ঞা করার রেকর্ড থাকায় এবং তার মধ্যে কোনো অনুশোচনা না থাকায় আদালত ন্যায় বিচারের স্বার্থে ওসিকে জরিমানা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x