পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার ঐতিহাসিক রাজবাড়ীসহ গুরুত্বর্পূণ স্থাপনা পরিদর্শন করেছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মন্ত্রী রামপ্রসাদ পালসহ রাজনৈতিক, সমাজিক, সংস্কৃতিকর্মী ও গণমাধ্যমকর্মী ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে পুঠিয়া পাঁচআনী রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শনকালে সাংস্কৃতিক মিলনমেলার প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ও আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রীর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের উদ্যোগে রাজশাহীতে ২৫ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি উভয় দেশের অংশ গ্রহণে সাংস্কৃতিক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে রোববার সকালে পুঠিয়া রাজবাড়ি এবং বিকেলে নাটোর রাজবাড়ি ও উত্তরা গণভবন পরিদর্শন করেন ভারতের অতিথিবৃন্দ।


এ সময় পুঠিয়া রাজবাড়িতে ভারতের অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছায় স্বাগত জানান উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন। পরে বিকেলে নাটোর রাজবাড়ি ও উত্তরা গণভবনে ভারতের অতিথিবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি প্রমুখ।

পরিদর্শনকালে ভারতীয় অতিথিবৃন্দকে ঐতিহাসিক স্থাপনা সমূহের ইতিহাস ও ঐতিহ্য বর্ণনা করা হয়। এছাড়া পরিদর্শনকালে পুঠিয়া রাজবাড়িতে অবস্থিত ঐতিহাসিক শিবমন্দর ও নাটোরে রাজবাড়িতে অবস্থিত সর্বমঙ্গলা মন্দিরে পূজায় অংশ নেন ভারতীয় অতিথিবৃন্দ।

পরিদর্শনকালে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস, নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারা, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল, পুঠিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জি এম হিরা বাচ্চু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরল হাই মোহাম্মদ আনাছ্ পিএএস, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ-ভারত ৫ম সাংস্কৃতিক মিলনমেলায় অংশ নিতে ভারতের মন্ত্রী সহ ৩৬ সদস্যের একটি দল গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীতে আসেন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি মিলনমেলা শেষে তারা ভারতে ফিরে যাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x