রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী আখ্যা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই মন্তব্যের জেরে দুই দেশের কূটনৈতিক উত্তেজনা আরও বাড়তে পারে। এবারই প্রথম পুতিনের নিন্দা জানাতে কঠোরতম ভাষা ব্যবহার করেন বাইডেন। পরে হোয়াইট হাউজের তরফ থেকে জানানো হয়েছে তিনি ‘হৃদয় থেকে উচ্চারিত’ কথা বলেছেন। তবে ক্রেমলিন বলেছে বাইডেনের মন্তব্য ‘ক্ষমার অযোগ্য ভাষা’।

বুধবার হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিক মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে প্রশ্ন রাখেন, ‘প্রেসিডেন্ট, সব কিছু দেখার পরে, আপনি কি পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী বলতে প্রস্তুত?’মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রথমে উত্তর দেন ‘না’, তবে এতেই চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে উত্তর পাল্টে বলেন, ‘আপনি কি জানতে চেয়েছেন আমি কী বলবো…? হ্যাঁ, আমি মনে করি তিনি একজন যুদ্ধাপরাধী’।

পরে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন পিসাকি বলেন, ইউক্রেনে সহিংসতার ‘বর্বর’ ছবি দেখার পর প্রেসিডেন্ট কোনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণার বদলে তার হৃদয় থেকে উচ্চারিত কথা বলেছেন। তিনি জানান, যুদ্ধাপরাধ নির্ধারণে আলাদা আইনি প্রক্রিয়া রয়েছে। যা পরিচালনা করে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারা আলাদাভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে মস্কো। ক্রেমলিন মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকোভ রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাস-কে বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি এই ধরনের ভাষা অগ্রহণযোগ্য এবং ক্ষমার অযোগ্য, বিশেষ করে সেই রাষ্ট্রপ্রধানের কাছ থেকে যার বোমা পুরো পৃথিবীর হাজার হাজার মানুষ হত্যা করেছে।’

সূত্র: বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x