ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর প্রতিদিনই শরণার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। দেশটিতে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি হামলা শুরু করে রাশিয়া। এতে এ পর্যন্ত শরণার্থী হয়েছে ১৪ লাখের বেশি শিশু; অর্থাৎ প্রতি এক মিনিটে একটি করে শিশু শরণার্থী হয়েছে।

জাতিসংঘের তথ্যের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার আল জাজিরা এ খবর জানায়।

জেনেভায় জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের মুখপাত্র জেমস এলডার সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত ২০ দিনে ইউক্রেনে গড়ে প্রতিদিন ৭০ হাজারের বেশি শিশু শরণার্থী হয়ে পড়েছে। এর মানে হচ্ছে, সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন একটি করে শিশু শরণার্থী হয়েছে।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। একইসঙ্গে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভসহ বিভিন্ন শহরে গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ বাহিনী।

যুদ্ধে দুই পক্ষেরই ব্যাপক প্রাণহানীর খবর পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে যুদ্ধের কারণে ইউক্রেন ছেড়েছেন ২৫ লাখের বেশি মানুষ। তারা প্রতিবেশি দেশগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন।

সূত্র জানায়, রাশিয়ার সীমান্তবর্তী ইউক্রেনের শহরগুলো ঘিরে রেখেছে রুশ সেনা বাহিনী; হামলা চলছে ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভেও।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পাশে অবস্থান করছে রুশ বাহিনীর ৪০ মাইল দীর্ঘ একটি বহর। তারা যে কোনো সময় শহরটিতে হামলা চালাতে পারে।

রাশিয়ার গোলা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় খারকিভ, মারিওপল শহরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানীর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x