জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে আগামী ১৭ মার্চ থেকে সপ্তাহব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে আওয়ামী লীগ। এবারের আয়োজনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘হৃদয়ে পিতৃভূমি’।

আজ বুধবার বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সভা শেষে এই অনুষ্ঠানমালা ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অত্যন্ত ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে পালন করবে আওয়ামী লীগ।

 

একসঙ্গে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন করা হচ্ছে, যা আর কখনো আসবে না। যারা জীবিত আছেন এবং এ অনুষ্ঠান পেয়েছেন তারা খুবই ভাগ্যবান, গোটা জাতি ভাগ্যবান।
আওয়ামী লীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে

১৭ মার্চ : টুঙ্গিপাড়ায় যাবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা অর্পণ করবেন। ওই দিন একটি শিশু-কিশোর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা যোগ দেবেন।
একই দিন বিকেলে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় উপস্থিত থেকে বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখবেন।

১৮ মার্চ : আওয়ামী লীগের উদ্যোগে টুঙ্গিপাড়ায় একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা সভায় অংশ নেবেন। বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন কর্মকাণ্ড ও স্বাধীনতার বিভিন্ন বিষয়গুলো সেখানে তুলে ধরা হবে। ১৮ মার্চ শবে বরাত হওয়ায় সব অনুষ্ঠান সন্ধ্যার আগেই শেষ হবে।

১৯ মার্চ : ছাত্রলীগ টুঙ্গিপাড়ায় তাদের কর্মসূচি পালন করবে। এরপর ২০ মার্চ জাতীয় শ্রীমক লীগ, ২১ মার্চ বাংলাদেশ কৃষক লীগ, ২২ মার্চ আওয়ামী যুবলীগ, ২৩ মার্চ যুব মহিলা লীগ, ২৪ মার্চ মহিলা আওয়ামী লীগ ও ২৫ মার্চ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ টুঙ্গিপাড়ায় তাদের কর্মসূচি পালন করবে।

এ ছাড়া ১৯ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত টুঙ্গিপাড়ায় স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিব) চিকিৎসকদের নিয়ে স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা সেবা দেবে।

১৯ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত সেখানে লোকজ মেলা হবে। বিভিন্ন জেলা থেকে মানুষ সেখানে অংশগ্রহণ করবেন। ২৫ মার্চ সব আয়োজন শেষ করে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস পালন করবে আওয়ামী লীগ।

এদিকে ঢাকায় ১৭ মার্চ সকালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এবং সারা দেশের সকল কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। ওই দিন সকাল সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধু ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে আওয়ামী লীগ।

কর্মসূচি ঘোষণার সময় সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, সাংস্কৃতিক বিষয়ক অসীম কুমার উকিল, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরীসহ সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : বাসস

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x