মোঃ মহিবুল ইসলাম, বরগুনাঃ
স্মার্ট ফোন মুড়ির বাটার উপর দাড়া করিয়ে রেখে বরগুনা সরকারী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক তরুণী রহস্যজনক ভাবে আত্মহত্যা করেছে। বাবা প্রবাসী এবং মা অনত্র বেড়াতে যাওয়ায় ফাঁকা বাসায় বসে এই আত্মহত্যা সংঘটিত হয়েছে। আত্মহত্যা কারী এই তরুণীর নাম জেরিন (১৭)।

আজ শুক্রবার সকাল ১০ থেকে ১১টার মধ‍্যে এই আত্মহত্যা সংঘটিত হয় বলে জানান জেরীনের বাড়ীওয়ালা। বাড়ীওয়ালা সোহাগ মিয়া স্হানীয় গনমাধ‍্যমকে জানান তাকে আত্মহত্যা করার আগে ব্রাশ করতে দেখেন। এরপর তার ঝুলন্ত দেহ ঘরের পিছনের দরজা থেকে দেখতে পেয়ে পুলিশ কে খবর দেই। জেরিনের বাসা বরগুনা পৌর শহরের ৮ নং ওয়ার্ডের গ্রীন রোডে।

বরগুনা সদর থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক দেবাশীষ রায় ঘটনাস্থলে বলেন, ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে জেরিন আত্মহত্যা করেন। তবে আত্মহত্যা করার সময় মুড়ির বাটার সঙ্গে মোবাইলে ভিডিও কলে থেকে জেরিন আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হবে।

এব‍্যাপারে বরগুনা সদর থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত মোঃ মাইনুল হোসেন বলেন ধারণা করা হচ্ছে কারো সঙ্গে লাইভে থেকে অথবা আত্মহত্যার ভিডিও করার জন্য মোবাইল ফোনটি পাশে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছিল। মোবাইল ফোনের পাসওয়ার্ড থাকায় ও শুক্রবার মোবাইলফোন টেকনিশিয়ানদের দোকান বন্ধ থাকায় এ বিষয়টি এখন পর্যন্ত উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে লাশ বরগুনা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরে এ বিষয়ে আরো ব্যাপক তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করা হবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x