রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সিংহাসন আরোহণের ৭০ বছর পূতি উপলক্ষে যুক্তরাজ্যে শুরু হয়েছে ‘প্লাটিনাম জুবিলি’ উৎসব। এ উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ রাজ দপ্তর থেকে রানির ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। প্লাটিনাম জুবিলির প্রাক্কালে জাতিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রানি। যুক্তরাজ্যজুড়ে লাখো মানুষ সশরীর অংশ নেবে এই আয়োজনে। আর টিভির পর্দায় সে আয়োজন দেখতে পাবে বিশ্বের শতকোটি মানুষ।

এ রাজকীয় আয়োজন কেমন হবে তা নিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার প্রায় ১ হাজার ৫০০ সেনাসদস্য, সেনাবাহিনীর সংগীত দলের ৪০০ সদস্য ও ২৫০টি ঘোড়া ঐতিহ্যবাহী ‘ট্রুপিং দ্য কালার’ (ব্রিটিশ সার্বভৌমত্বের জন্মদিন উদ্‌যাপন) কুচকাওয়াজে অংশ নেবে। করোনা মহামারিকে কেন্দ্র করে দুই বছর এ কুচকাওয়াজ বন্ধ ছিল।

ট্রাফালগার স্কয়ার থেকে বাকিংহাম প্যালেস পর্যন্ত কোল্ডস্ট্রিম গার্ডসের প্রায় ২০০ সেনা মোতায়েন থাকবেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে দেশজুড়ে ৪২টি গান স্যালুট দেয়া হবে। স্পেনের জিব্রাল্টারে নিয়োজিত সেনা দলের পাশাপাশি সাগরে ভাসমান রয়েল নেভির নির্বাচিত জাহাজ থেকেও গুলি ছোড়া হবে। এর এক ঘণ্টা পর টাওয়ার অব লন্ডনে ১২৪ রাউন্ড গান স্যালুট দেওয়া হবে।

কুচকাওয়াজের শেষ অংশে থাকবে বাকিংহাম প্যালেসের ওপর দিয়ে ফ্লাইপাস্ট। সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি শাখার ৭০টির বেশি বিমান ফ্লাইপাস্টে অংশ নেবে। রাজপরিবারের যেসব সদস্যের রাজপদবী আছে, তারাই শুধু এখানে উপস্থিত থাকতে পারবেন। এর মানে হলো প্রিন্স হ্যারি, তাঁর স্ত্রী মেগান ও রানি এলিজাবেথের দ্বিতীয় পুত্র প্রিন্স অ্যান্ড্রু অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকছেন না।

বৃহস্পতিবার রাতে দেশের চারটি সর্বোচ্চ চূড়াসহ যুক্তরাজ্যজুড়ে দুই হাজার আট শতাধিক আলোকশিখা জ্বালানো হবে। পাঁচটি মহাদেশের কমনওয়েলথভুক্ত ৫৪টি দেশের রাজধানীতে মশাল জ্বালিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হবে। ফ্রান্সও এ উদ্‌যাপনে অংশ নেবে। দেশটির ইংল্যান্ডমুখী উপকূলের ভবনগুলোয় আলোকসজ্জা করা হবে। লন্ডনের বিভিন্ন সেতু, স্তম্ভ ও গির্জায়ও আলোকসজ্জা করা হবে।

শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত যা যা আয়োজন

পরদিন শুক্রবার লন্ডনের সেন্ট পলস ক্যাথেড্রালে ধন্যবাদ জ্ঞাপন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। গ্রেট পল বেল বাজানো হবে সেখানে। ১৬ দশমিক ৫ টন ওজনের বিশালাকার এই বেল যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বড় বেল। ১৯৭০-এর দশকে এটি নষ্ট হয়ে যায়। গত বছর সংস্কারের মধ্য দিয়ে বেলটিকে আগের মহিমায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

আগামী শনিবার ৫ হাজার জরুরি কর্মীসহ প্রায় ২২ হাজার অতিথি বাকিংহাম প্যালেসে আয়োজিত বিবিসি কনসার্টে উপস্থিত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে। আড়াই ঘণ্টার ওই সংগীত আয়োজনের একটি অংশে রানিও অংশ নেবেন। তাঁর সঙ্গে ওই পরিবেশনায় থাকবেন অ্যাডাম ল্যাম্বার্ট, ডায়ানা রস, আলিসিয়া কিস এবং নাইল রজারস।

যুক্তরাজ্য সরকারের তথ্য অনুযায়ী, রোববার ‘বিগ জুবিলি লঞ্চেস’ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ৭০ হাজারের বেশি মানুষ নিবন্ধন করেছেন। এ আয়োজনে অংশ নেয়ার মধ্য দিয়ে এক কোটি মানুষ প্রতিবেশীর সঙ্গে খাবার বিনিময় ও বন্ধুত্ব করবেন।

প্রিন্স চার্লস ও তার স্ত্রী ক্যামিলিয়া লন্ডনে দ্য ওভাল ক্রিকেট গ্রাউন্ডের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওই অনুষ্ঠানে ‘প্লাটিনাম পুডিং’–এর ডিজাইনে ছয় মিটার (প্রায় ২০ ফুট) দীর্ঘ একটি ফেল্ট আর্টওয়ার্ক প্রদর্শন করা হবে।

আগামী রোববারের মধ্য লন্ডনজুড়ে ‘প্লাটিনাম জুবিলি পেজেন্ট’ নামে একটি গণকুচকাওয়াজের আয়োজন করা হবে। এদিন প্রায় ১০ হাজার মানুষকে নিয়ে একটি সৃজনশীল প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। ওই প্রদর্শনীতে দেখানো হবে, ১৯৫২ সালে রানির শাসন শুরু হওয়ার পর কীভাবে ব্রিটিশ সমাজ বদলে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x