লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
রবিন হোসেন তাসকিন

লক্ষ্মীপুরে সানজিদা সুলতানা (২২) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) দিবাগত রাত ১২টার দিকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মাস্টার কলোনীর একটি ভাড়া বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে সানজিদা আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছে তার পরিবার। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পলাশ কান্তি নাথ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জানা যায়, সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের যাদৈয়া গ্রামের মালেশিয়া প্রবাসী রাজন হোসেনের স্ত্রী সানজিদা। তাদের সংসারে ৪ বছরে ছেলে রয়েছে। ছেলেকে নিয়ে সানজিদা লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মাস্টার কলোনীতে ভাড়া বাসায় থাকতের। সম্প্রতি রাজন মালেশিয়া থেকে লক্ষ্মীপুর আসেন।

পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দুপুরে মোবাইলফোনের একটি সিম নিয়ে রাজন ও তার স্ত্রী সানজিদার বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ছেলেকে নিয়ে রাজন বাসা থেকে বের হয়ে যান। এরপর তারা বাসায় ফেরেনি। বাসায় সানজিদার মা আসমা বেগম ও ছোট বোন ছিল। এশার সময় মা ও বোনকে নামাজের কথা বলে শয়নকক্ষের দরজা বন্ধ করে দেয় সানজিদা। অনেক সময় অতিবাহিত হলেও দরজা না খোলায় সন্দেহ হয় পরিবারের সদস্যদের। পরে জানালা দিয়ে সানজিদার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় তারা৷

সানজিদার মা আসমা বেগম বলেন, মোবাইল সিম নিয়ে ঝগড়ার পর ছেলেকে নিয়ে রাজন বাসা থেকে বের হয়। রাত বাড়তে থাকলেও তারা ফিরে আসেনি। পরে সানজিদা নিজের ঘরের দরজা বন্ধ করে আত্মহত্যা করে।

লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, পারিবারিক কলহে গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x