বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় ও সম্মানজনক পুরস্কার অস্কার। এটি আন্তর্জাতিক শোবিজের সবচেয়ে বড় স্বীকৃতি। অস্কারের ৯৪তম আসরের জন্য চূড়ান্ত মনোনয়ন প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় এ মনোনয়ন ঘোষণা করা হয়। ঘোষণা করেন অভিনেতা লেসলি জর্ডান ও গোল্ডেন গ্লোবজয়ী অভিনেত্রী-প্রযোজক ট্রেসি এলিস রস।

৯৪তম অস্কারে সেরা ছবি, সেরা চলচ্চিত্র নির্মাতা, সেরা অভিনয়শিল্পী, সেরা প্রামাণ্যচিত্রসহ ২৩টি বিভাগে পুরস্কার প্রদান করা হবে। অ্যাকাডেমির ১৭টি বিভাগের সংশ্লিষ্ট সদস্যদের ভোটে মনোনয়ন তালিকা চূড়ান্ত হয়েছে। অভিনেতা-অভিনেত্রীরা অভিনয়শিল্পীদের, পরিচালকরা পরিচালকদের, চলচ্চিত্র সম্পাদকরা একই পেশার শিল্পীদের ভোট দিয়েছেন।

অস্কারের গুরুত্বপূর্ণ বিভাগে মনোনয়ন পেলেন যারা-

সেরা চলচ্চিত্র: বেলফাস্ট, কোডা, ডোন্ট লুক আপ, ড্রাইভ মাই কার, ডিউন, কিং রিচার্ড, লিকোরিস পিৎজা, নাইটমেয়ার অ্যালি, দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ, ওয়েস্ট সাইড স্টোরি

অভিনেতা: হাভিয়ার বারদেম (বিইং দ্য রিকার্ডোস), বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচ (দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ), অ্যান্ড্রু গারফিল্ড (টিক, টিক…বুম!), উইল স্মিথ (কিং রিচার্ড), ডেনজেল ওয়াশিংটন (দ্য ট্র্যাজেডি অব লেডি ম্যাকবেথ)

অভিনেত্রী: জেসিকা চ্যাস্টেইন (দ্য আইস অব টেমি ফেই), অলিভিয়া কোলম্যান (দ্য লস্ট ডটার), নিকোল কিডম্যান (বিইং দ্য রিকার্ডোস), পেনেলোপি ক্রুজ (প্যারালাল মাদারস), ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট (স্পেন্সার)

পার্শ্ব-অভিনেতা: কিয়ারান হাইন্ডস (বেলফাস্ট), ট্রয় কাটসার (কোডা), জেসি প্লেমনস (দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ), জে. কে. সিমন্স (বিইং দ্য রিকার্ডোস), কোডি স্মিথ-ম্যাকফি (দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ)

পার্শ্ব-অভিনেত্রী: জেসি বাকলি (দ্য লস্ট ডটার), আরিয়ানা ডিবোজ (ওয়েস্ট সাইড স্টোরি), জুডি ডেঞ্চ (বেলফাস্ট), কির্স্টেন ডান্সট (দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ), আনজোনুই এলিস (কিং রিচার্ড)

পরিচালক: কেনেথ ব্রানা (বেলফাস্ট), রিয়ুসুকে হামাগুচি (ড্রাইভ মাই কার), পল থমাস অ্যান্ডারসন (লিকোরিস পিৎজা), জেন ক্যাম্পিয়ন (দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ), স্টিভেন স্পিলবার্গ (ওয়েস্ট সাইড স্টোরি)

মৌলিক চিত্রনাট্য: বেলফাস্ট (কেনেথ ব্রানা), ডোন্ট লুক আপ (অ্যাডাম ম্যাককে, ডেভিড সিরোটা), কিং রিচার্ড (জ্যাক বেইলিন), লিকোরিস পিৎজা (পল থমাস অ্যান্ডারসন), দ্য ওর্স্ট পারসন ইন দ্য ওয়ার্ল্ড (এসকিল ভক্ট, ওয়াকিম ট্রিয়ার)

অ্যাডাপ্টেড চিত্রনাট্য: কোডা (শন হেডার), ড্রাইভ মাই কার (রিয়ুসুকে হামাগুচি, তাকামাসা ওই), ডিউন (ডেনি ভিলন্যুভ, এরিক রোথ, জন স্পেইটস), দ্য লস্ট ডটার (ম্যাগি জিলেনহাল), দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ (জেন ক্যাম্পিয়ন)

অ্যানিমেটেড ছবি: এনকান্টো (ওয়াল্ট ডিজনি অ্যানিমেশন স্টুডিওস), ফ্লি (আন্তর্জাতিক যৌথ প্রযোজনা), লুকা (পিক্সার অ্যানিমেশন স্টুডিওস), দ্য মিচেলস ভার্সেস দ্য মেশিনস (সনি পিকচার্স অ্যানিমেশন), রায়া অ্যান্ড দ্য লাস্ট ড্রাগন (ওয়াল্ট ডিজনি অ্যানিমেশন স্টুডিওস)

চিত্রগ্রহণ: ডিউন (গ্রেগ ফ্রেজার), নাইটমেয়ার অ্যালি (ড্যান লাউস্টসেন), দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ (আ ওয়েগনার), দ্য ট্র্যাজেডি অব ম্যাকবেথ (ব্রুনো ডেলবোনেল), ওয়েস্ট সাইড স্টোরি (জানুস কামিনস্কি)

পোশাক ডিজাইন: ক্রুয়েলা (জেনি বেভান), সিরানো (মাসিমো কান্তিনি পারিনি), ডিউন (জ্যাকলিন ওয়েস্ট, রবার্ট মর্গ্যান), নাইটমেয়ার অ্যালি (লুইস সেকেইরা), ওয়েস্ট সাইড স্টোরি (পল টেজওয়েল)

প্রামাণ্যচিত্র: অ্যাসেনশন, অ্যাটিকা, ফ্লি, সামার অব সৌল (…অর, হোয়েন দ্য রেভোল্যুশন কুড নট বি টেলিভাইসড), রাইটিং উইথ ফায়ার

স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্র: অডিবল, লিড মি হোম, দ্য কুইন অব বাস্কেটবল, থ্রি সংস ফর বেনজির, হোয়েন উই ওয়্যার বুলিস

সম্পাদনা: ডোন্ট লুক আপ, ডিউন, কিং রিচার্ড, দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ, টিক টিক…বুম!

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র: ড্রাইভ মাই কার (জাপান), ফ্লি (ডেনমার্ক), দ্য হ্যান্ড অব গড (ইতালি), লুনানা: অ্যা ইয়াক ইন দ্য ক্লাসরুম (ভুটান), দ্য ওর্স্ট পারসন ইন দ্য ওয়ার্ল্ড (নরওয়ে)

রূপসজ্জা: কামিং টু আমেরিকা, ক্রুয়েলা, ডিউন, দ্য আইস অব টেমি ফে, হাউস অব গুচ্চি

মৌলিক সুর: ডোন্ট লুক আপ (নিকোলাস ব্রিটেল), ডিউন (হ্যান্স জিমার), এনক্যান্টো (জার্মেইন ফ্রাঙ্কো), প্যারালাল মাদারস (আলবার্তো ইগলেসিয়াস), দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ (জনি গ্রিনউড)

মৌলিক গান: বি অ্যালাইভ (বিয়ন্সে নোলস-কার্টার ও ডিক্সসন, ছবি: কিং রিচার্ড), ডস ওরাগিটাস (লিন-ম্যানুয়েল মিরান্ডা, ছবি: এনক্যান্টো), ডাউন টু জয় (ভ্যান মরিসন, ছবি: বেলফাস্ট), নো টাইম টু ডাই (বিলি আইলিশ ও ফিনিয়াস ও’কনেল, ছবি: নো টাইম টু ডাই), সামহাউ ইউ ডু (ডায়েন ওয়ারেন, ছবি: ফোর গুড ডেজ)

শিল্প নির্দেশনা: ডিউন, নাইটমেয়ার অ্যালি, দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ, দ্য ট্র্যাজেডি অব ম্যাকবেথ, ওয়েস্ট সাইড স্টোরি

শব্দ: বেলফাস্ট, ডিউন, নো টাইম টু ডাই, দ্য পাওয়ার অব দ্য ডগ, ওয়েস্ট সাইড স্টোরি

ভিজ্যুয়াল ইফেক্টস: ডিউন, ফ্রি গাই, নো টাইম টু ডাই, শাঙ-চি অ্যান্ড দ্য লিজেন্ড অব দ্য টেন রিংস, স্পাইডার-ম্যান: নো ওয়ে হোম

স্বল্পদৈর্ঘ্য অ্যানিমেটেড ছবি: অ্যাফেয়ার্স অব দ্য আর্ট, বেস্টিয়া, বক্সব্যালে, রবিন রবিন, দ্য উইন্ডশিল্ড ওয়াইপার

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: আলা কাচু-টেক অ্যান্ড রান, দ্য ড্রেস, দ্য লং গুডবাই, অন মাই মাইন্ড, প্লিজ হোল্ড

আগামী ১৭ মার্চ থেকে ২২ মার্চ পর্যন্ত অ্যাকাডেমির সক্রিয় সদস্যরা ভোট দিয়ে বিজয়ী তালিকা চূড়ান্ত করবেন। লস অ্যাঞ্জেলসের হলিউডে ডলবি থিয়েটারে ৯৪তম অস্কার অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৭ মার্চ। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন তারকারা। এবিসি টেলিভিশন বাংলাদেশসহ ২০০টিরও বেশি দেশে সরাসরি দেখাবে এই আয়োজন।

১৯২৭ সাল থেকে অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস (আমপাস) সদস্যদের ভোটে অস্কারের মনোনয়ন ও পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। অভিনয়শিল্পী, পরিচালক, চিত্রগ্রাহকসহ মোট ১৭টি শাখায় ১০ হাজারের বেশি সদস্য আছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর অস্কারের রিমাইন্ডার লিস্টে বাংলাদেশের নির্মাতা গাজী রাকায়েতের সিনেমা ‘দ্য গ্রেভ’ স্থান পেলেও, চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকায় স্থান পায়নি সিনেমাটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x