17 June, 2021
শিরোনাম

প্রবাসী যুবকদের ফাঁদে ফেলে ‘স্ট্রিমকার’ অ্যাপের মাধ্যমে ৩০ কোটি টাকা পাচার

 10 Jun, 2021   81 বার দেখা হয়েছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অ্যাপ স্ট্রিমকারের লাইভে নামিদামি তারকাদের রেখে প্রবাসী যুবক ও তরুণদের ফাঁদে ফেলে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র। গত এক বছরে এ চক্র ৩০ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে বলে জানায় সিআইডি।

 

 

 

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) কার্যালয়ে এক সংবাদ বিফ্রিংয়ে এসব তথ্য জানানো হয়।

 

বিফ্রিংয়ে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অ্যাপ-স্ট্রিমকার। এই অ্যাপটি বাংলাদেশে নিষিদ্ধ হলেও ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন ব্যবহার করে এটি চালাচ্ছে একটি চক্র। চক্রের সদস্যরা হোস্ট আইডি খুলে চ্যাটিংয়ে যুক্ত করে দেশের নামিদামি তারকা ও সুন্দরী তরুণীদের। তারকা আর সুন্দরী তরুণীদের সাথে ভার্চুয়াল আড্ডার এক পর্যায়ে এই অ্যাপ ব্যবহারকারী প্রবাসী যুবক ও উঠতি বয়সীরা বিন্স নামক ডিজিটাল মুদ্রা গিফট করে।

 

গ্রহীতার কাছে আসলেই বিন্স জেমস নামক আরেক ডিজিটাল মুদ্রায় রূপান্তরিত হয়। চক্রের সদস্যরা স্ট্রিমকারের হোস্ট এজেন্সি খুলে বিন্স ও জেমসের কেনাবেচা নিয়ন্ত্রণ করত। তারা এই বেচাকেনার মাধ্যমে গত এক বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকারও বেশি লেনদেন করেছে। যার অধিকাংশই বিদেশে পাচার হয়েছে বলে ধারণা সিআইডির।

 

এ ঘটনায় এ চক্রের ২ সদস্য নিধু রাম দাস ও ফরিদ উদ্দিনকে সিলেটের গোয়াইনঘাট থেকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি।

 

সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান গণমাধ্যমকে জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে স্ট্রিমকারের বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। এরপর সুন্দরী তরুণীদের একটি চাকরির কথা বলা হয়। চাকরির চার ঘণ্টা লাইভ স্ট্রিমিং করলে টাকা পাওয়া যাবে এমনটা তাদের জানানো হয়। এক্ষেত্রে একেকজনকে ১৬ হাজার টাকা থেকে লক্ষাধিক টাকা পর্যন্ত বেতন দেওয়া হয়।সূত্র -প্রবাস জার্নাল 

সম্পর্কিত খবর
সব খবর
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | বাংলা৫২নিউজ.কম
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি এবং অপরাধ