24 November, 2020
শিরোনাম

ধর্ষকের ফাঁসি চায় যুব মহিলা লীগ

 06 Oct, 2020   76 বার দেখা হয়েছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নারী-শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে যুব মহিলা লীগ। এ সময় তারা ধর্ষকের ফাঁসির দাবি জানান।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) সকাল ১১টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ আয়োজিত নারী-শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি হয়।

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নারী-শিশু নির্যাতন এবং তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে এই কর্মসূচি পালন করেন তারা।

এছাড়া ধর্ষণের প্রতিবাদে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে মিছিল বের করেছে শিক্ষার্থীরা। মৌচাক এলাকা থেকে শিক্ষার্থীদের একটি মিছিল মালিবাগ মোড় হয়ে শাহবাগের দিকে যায়। বর্তমানে শাহবাগে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করছেন। রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীদেরও কর্মসূচী পালন করতে দেখা গেছে।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকেই কালো প্রোফাইল আপলোড করছেন। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে চলছে আন্দোলন।

উল্লেখ্য, দেশে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যকার নয় মাসে প্রতিদিন গড়ে তিনটির বেশি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সলিশ কেন্দ্রের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

নয় মাসে মোট ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে ৯৭৫টি। ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হয়েছেন ৪৩ জন নারী। আর আত্মহত্যা করেছেন ১২ জন।

সেপ্টেম্বরের বেশ কয়েকটি চাঞ্চল্যকর ধর্ষণের ঘটনার মধ্যে আছে

১৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড় করতে গিয়ে ধর্ষিত হয়েছেন এক নারী।

২৩ সেপ্টেম্বর খাগড়াছড়িতে ডাকাতি করতে ঘরে ঢুকে এক প্রতিবন্ধী তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়েছে।

২৩ সেপ্টেম্বর গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে এক তরুণীকে (২০) দুইদিন ধরে আটকে রেখে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়েছে।

২৫ সেপ্টেম্বর পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় দুই ভাশুরের হাতে ধর্ষিত হন এক নারী। তার স্বামী ও শাশুড়ি তাকে এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য বলেছেন।

২৫ সেপ্টেম্বর সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়েছে। এর সাথে জড়িত ছাত্রলীগের নেতা-কমীরা।

২৬ সেপ্টেম্বর কাজ দেওয়ার নামে ডেকে নিয়ে এক নারীকে ধর্ষণ করা হয় কেরানীগঞ্জ মডেল টাউন এলাকায়।

১০-২৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বান্দরবানের লামায় এক পাহাড়ি নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, তাইদং খওয়া পাড়ায় পাহাড়ি কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

উল্লিখিত ঘটনাগুলো আলোড়ন তুলছে। বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষিতে বিচারের দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন অনেকেই।

সম্পর্কিত খবর
সব খবর
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | বাংলা৫২নিউজ.কম
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি এবং অপরাধ